অভয়নগর কৃষি সম্প্রারন কর্মকর্তাকে স্যার না বলায় ক্ষিপ্ত, লাঞ্চিত দুই সাংবাদিককে

0
56

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি :
অভয়নগর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন কর্মকর্তাকে স্যার না বলে ভাই বলায় ক্ষিপ্ত হয়ে লাঞ্চিত করে তার অফিস থেকে ৪ সাংবাদিককে বের করে দিয়েছেন। ওই কর্মকর্তা তখন ২ জন নারীর সাথে খোশগল্প করছিলেন। সোমবার সকালে উপজেলা কৃষি অফিসে এ ঘটনা ঘটে। ওই কর্মকর্তার নাম আব্দুস সোবহান। এ ঘটনায় অভয়নগরে সাংবাদিকদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
সাংবাদিক আতিয়ার রহমান জানান, অভয়নগর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সহ অনেক কর্মকর্তা নিয়মিত অফিসে আসেন না। রোববার সকাল ১০ টায় সময় ওই অফিসে যেয়ে কৃষি কর্মকর্তাকে না পেয়ে কৃষি সম্প্রসারন কর্মকর্তা আব্দুস সোবহানের অফিসে যেয়ে দেখি ২ জন মহিলাকে নিয়ে খোশগল্প করছেন। আমাকে দেখেই চমকে ওঠেন। আমি তাকে ভাই বলে কৃষি কর্মকর্তা কোথায় আছেন জানতে গেলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে আমার দিকে তেড়ে আসেন। এবং ওই অফিসের পিওনকে ডাকাডাকি করে আমাকে বের করে দিতে বলেন। এসময় পাশে থাকা সাংবাদিক রিপানুর ইসলাম এগিয়ে গেলে তাকেও লাঞ্চিত করে বের করে দেন।
এ ঘটনার পর দৈনিক জনতার অভয়নগর প্রতিনিধি কামরুল ইসলাম ও দৈনিক খুলনা টাইমসের অভয়নগর প্রতিনিধি শেখ জাকারিয়া রহমান বিষয়টি জানতে ওই কর্মকর্তার নিকট যেয়ে ভাই বললে তাদেরকেও অফিস থেকে বের দেন এবং বলেন আমি একজন বিসিএস ক্যাডার আমার সাথে কিভাবে কথা বলতে হয় জানেন না?
সাংবাদিক রিপানুর ইসলাম বলেন “ উপজেলা কৃষি অফিসের আব্দুস সোবহানের বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে তিনি প্রায়ই তার অফিসে নারীদের সাথে মেতে থাকেন। সোমবার আমিও সংবাদ সংগ্রহে গিয়ে ছিলাম। যেয়ে আতিয়ার ভাইয়ের ঘটনা জানতে গেলে আমার সাথেও খারাপ আচরণ করেন।
এ ব্যাপরে উপজেলা অভয়নগর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আব্দুস সোবহানের মোবাইল (০১৭৯৯৪৮০২৪৩) ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজী হননি।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার বিষয়ে জানতে চাইলে কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর যশোরের উপ- পরিচালক মো: এমদাদ হোসেন শেখ বলেন “ অভয়নগর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা গোলাম সামদানী ৩ দিনের ছুটিতে রয়েছেন। আপনারা একটু মিমাংসা করে নেন।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা গোলাম সামদানী বলছেন তিনি এক দিনের ছুটিতে রয়েছেন। এবং এসে বিষয়টি তিনি দেখবেন।


একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here