২৫ মার্চের সেই কালরাতের কথা ভেবে শিউরে উঠি : লুমিন

0
288

‘আমার জন্ম ১৯৭৮ সালে। ১৯৭১ সালে ২৫ মার্চের সেই কালরাতের কথা ভেবে শিউরে উঠি। আমি তো মুক্তিযুদ্ধ পাইনি, কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের অনেক গল্প শুনেছি। এবার ২৫ মার্চের সেই কালরাত নিয়ে গান গেয়েছি। গানটি সেই কালরাতে রাজারবাগ পুলিশ লাইনে প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ নিয়ে। গানটি গাওয়ার সময় মনে হয়েছে, ১৯৭১ সালের স্বাধীনতাযুদ্ধে আমিও ছিলাম।’ বললেন লুমিন, পুরো নাম শাহনূর রহমান। দেশের অন্যতম জনপ্রিয় ব্যান্ড ফিডব্যাকের কণ্ঠশিল্পী তিনি।

২০০৩ সালে ফিডব্যাকের সঙ্গে যুক্ত হন লুমিন। পড়াশোনা করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে। জড়িত ছিলেন গান আর বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের সঙ্গে। এত দিন তিনি ফিডব্যাকের সঙ্গেই গান করেছেন। এবার তিনি ব্যান্ডের বাইরেও কিছু কাজ করছেন। জানালেন, এরই মধ্যে ছয়টা গান তৈরি হয়েছে। আগামীকাল রোববার ধ্রæব মিউজিক স্টেশন থেকে আসছে প্রথমটি। শিরোনাম ‘পঁচিশে মার্চ’। এই প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানা গেছে, ধ্রæব মিউজিক স্টেশনের ইউটিউব চ্যানেলে ‘পঁচিশে মার্চ’ গানের মিউজিক ভিডিও প্রকাশ করা হবে। পাশাপাশি গানটি শোনা যাবে ডিএমএস ওয়েবসাইট আর জিপি মিউজিকে।

‘পঁচিশে মার্চ’ গানের গীতিকার দেওয়ান লালন আহমেদ। তিনি পুলিশ সুপার। কথাপ্রসঙ্গে লুমিন পরিচয় করিয়ে দেন, ‘লালন আমার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধু। পুলিশে কর্মরত আছেন। সাংস্কৃতিক চর্চা করছেন দীর্ঘদিন। লেখালেখিও করছেন।’

দেওয়ান লালন আহমেদ জানান, ‘বীরাঙ্গনা’ শিরোনামে সম্প্রতি তাঁর লেখা একটি গান বেরিয়েছে। টেপরি রানী আর তাঁর যুদ্ধশিশুকে নিয়ে এই গান। গত বছর ১৫ আগস্ট বেরিয়েছিল আরেকটি গান ‘কাঁদো বাঙালি কাঁদো’। বললেন, ‘পুলিশে যোগ দেওয়ার আগে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চের সেই কালরাতের ব্যাপারে অনেক কিছুই জানতাম না। যখন জানতে পেরেছি, শিউরে উঠেছি। সেটাই ছিল পাকিস্তানের হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ। সেই কালরাত নিয়ে কিছু লেখার পরিকল্পনা করেছি। এবার সেই গানের মিউজিক ভিডিও তৈরি হয়েছে। আমার বন্ধু গানটি দারুণ গেয়েছেন।’

‘পঁচিশে মার্চ’ গানটির সুর করেছেন সাজেদ ফাতেমী। সংগীতায়োজন করেছেন জে আর সুমন। গানটির মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করেছেন তানভির আহমেদ।
সূত্র: প্রথম আলো