হিলি সীমান্তে পুলিশ-বিজিবির বাড়তি নজরদারি

0
238

খুলনাটাইমস: ক্যাসিনো কর্মকা-ের সঙ্গে জড়িত যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসেন চৌধুরী স¤্রাটসহ অন্য অভিযুক্তরা যেন ভারতে পালিয়ে যেতে না পারে সেজন্য দিনাজপুরের হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট ও সীমান্তে বাড়তি নজরদারি বাড়িয়েছে পুলিশ ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। পুলিশ সদর দপ্তর থেকে এ-সংক্রান্ত নির্দেশনা পাবার পর গত বুধবার সকাল থেকে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে বাড়তি সতর্কতা জারি করে পুলিশ। সেই সঙ্গে হিলি সীমান্ত এলাকায় বিজিবির পক্ষ থেকেও নজরদারি বাড়ানো হয়। হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের এএসআই মোত্তালেব হোসাইন জানান, ক্যাসিনো কর্মকা-ের সঙ্গে জড়িত যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসেন চৌধুরী স¤্রাট যেন হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট ব্যবহার করে ভারতে যেতে না পারে সদর দপ্তর থেকে এ-সংক্রান্ত নির্দেশনা পেয়েছি। এরপর থেকেই তার নাম বল্ক করে দেওয়াসহ পুলিশের পক্ষ থেকে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে বাড়তি সর্তকতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি অন্য কোনো অপরাধীরা যাতে এই পথ ব্যবহার করে ভারতে পালিয়ে যেতে না পারে সেজন্য পাসপোর্টের ছবি ওয়ারেন্টেভুক্ত ছবির সঙ্গে মিলিয়ে নাম পরিচয় নিশ্চিতের পরেই তাদের যাতায়াতের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে। বিজিবি হিলির আইসিপি ক্যাম্প কমান্ডার সুবেদার আলতাব হোসেন জানান, বিজিবি হচ্ছে একটি সীমান্তরক্ষী বাহিনী। সে কারণে বিজিবি সবসময় সীমান্তে সতর্কাবস্থায় থাকে। কেউ যেন সীমান্ত পেরিয়ে অবৈধপথে বাংলাদেশ থেকে ভারতে যেতে না পারে বা ভারত থেকে বাংলাদেশে আসতে না পারে সেজন্য সীমান্তে নিয়মিত টহলের পাশাপাশি বাড়তি টহলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে সীমান্তের সব কার্যক্রমের ওপর সার্বক্ষণিক নজরদারিসহ সীমান্ত এলাকায় চলাচলকারীদের নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে সীমান্তে বিজিবির যেসব কার্যক্রম রয়েছে সেগুলো জোরদার করা হয়েছে।