হারপুন লিকুইড টয়লেট ক্লিনার’র টয়লেট ডে পালন

0
659

সংবাদবিজ্ঞপ্তি:
সারাবিশ্বে এখনও ৩৭ শতাংশ জনগণ পরিচ্ছন্ন টয়লেট-এর সুবিধা থেকে বঞ্চিত। তাই সুবিধা বঞ্চিত এইসব মানুষদের পরিচ্ছন্ন টয়লেট এর সুবিধা দেয়ার লক্ষ্যে ২০০১ সাল থেকে ওয়ার্ল্ড টয়লেট অর্গ্যানাইজেশন ওয়ার্ল্ড টয়লেট ডে দিবসটি পালন করছে । ২০১৩ সাল থেকে জাতিসংঘও দিনটিকে ‘ওয়ার্ল্ড টয়লেট ডে’ হিসেবে ঘোষণা দেয়।

আর এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশেও প্রাত্যহিক জীবনে পরিচ্ছন্ন টয়লেটের ব্যবহার এবং সুষ্ঠু পয়ঃনিষ্কাশন-এর প্রয়োজনীয়তা এবং সুবিধা সম্পর্কে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ‘টয়লেট ডে ২০১৭-এ আমাদের অঙ্গীকার, পারফেক্ট হোক টয়লেট ব্যবহার’ ¯েøাগান নিয়ে আজ রবিবার (১৯নভেম্বর) কাজী এন্টারপ্রাইজেস লিমিটেড-এর পণ্য হারপুন লিকুইড টয়লেট ক্লিনার-এর উদ্যোগে পালিত হলো ‘ওয়ার্ল্ড টয়লেট ডে’।

দিনের শুরুতেই ঢাকা ইউনিভার্সিটি টিএসসি মিলনায়তনের সামনে থেকে শুরু হয় গণসচেতনতামূলক র‌্যালি। বেলুন এবং কবুতর উড়িয়ে উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়-এর প্রধান উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আখতারুজ্জামান। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়-এর প্রোক্টও অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী এবং টি.এস.সি মিলনায়তন-এর পরিচালক এ. এম. এম. মহিউজ্জামান চৌধুরী (ময়না), কাজী এন্টারপ্রাইজেস লিমিটেড এর হেড অফ সেলস সোহেল হাওলাদার এবং ব্র্যান্ড ম্যানেজার সাজফিনা সিরাজ সহ সমাজের নানা ক্ষেত্রের আরও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। কয়েকটি স্কুলের বেশ কিছু ছাত্র-ছাত্রী র‌্যালিকে আরও প্রাণবন্ত করে তোলে। বর্ণাঢ্য র‌্যালিটি শেষ হয় শাহবাগ মোড়-এ এসে।

উদ্বোধনী Ÿক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়-এর প্রধান উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আখতারুজ্জামান কাজী এন্টারপ্রাইজেস লিমিটেড এবং হারপুন লিকুইড টয়লেট ক্লিনার-কে এই কর্মসূচীটি আয়োজনের জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশে সবাই যাতে সচেতনভাবে টয়লেট ব্যবহার করতে পাওে সেই জন্যই বিশ্বেও অন্যান্য দেশের সাথে তাল মিলিয়ে এবার বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছে ওয়ার্ল্ড টয়লেট ডে। উপাচার্য আরও বলেন, যাদের বাসার টয়লেট পরিষ্কার থাকে তারা জানে স্বাস্থ্য সম্মতভাবে জীবনযাপনের উপায়। এ ধরনের দিবস পালনের মধ্যে দিয়েই সবাই আস্তে আস্তে সচেতন হয়ে উঠবে পরিবেশ এবং পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারে। তাই তিনি আবারও উপস্থিত কাজী এন্টারপ্রাইজেস লিমিটেড এর সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে দিবসটির অন্যান্য কর্মসূচীর উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

এছাড়াও ঢাকার বিভিন্ন স্থানের বেশকিছু পাবলিক টয়লেট-এর পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম চলেছে সকাল থেকে দিনের শেষ পর্যন্ত। ১৯ নভেম্বর, দিনব্যাপী সচেতনতামূলক স্টিকার বিতরণের মাধ্যমে ঘওে ঘরে, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে, লঞ্চ ও বাস টার্মিনালসহ ঢাকা শহরের বিভিন প্রান্তে পৌঁছে দেয়া হয় পরিচ্ছন্ন টয়লেট ব্যবহার এবং সুষ্ঠ পয়ঃনিষ্কাশন-এর বার্তা। এই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে দেশের টিভি, চলচ্চিত্র, সংবাদ, রাজনীতিসহ বিভিন্নমাধ্যমের খ্যাতনামা ব্যক্তিবর্গ ভিডিও বার্তার মাধ্যমে একাত্মতা জ্ঞাপনকরেন।

হারপুন লিকুইড টয়লেট ক্লিনার-এর এই উদযাপনের মাধমে রাজধানীর সকল মানুষকে সচেতন করা হয় অপরিচ্ছন্ন টয়লেটের ব্যবহারের ক্ষতি, পরিচ্ছন্ন ও সুষ্ঠু উপায়ে টয়লেট ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা এবং ফলাফল সম্পর্কে। পরিচ্ছন্ন ও রোগমুক্ত আগামীর লক্ষ্যে এই পদক্ষেপ ছিল প্রশংসনীয়।