হত্যাসহ ১২ মামলার আসামী শীর্ষ সন্ত্রসী ইমলাক পিস্তলসহ কালীগঞ্জে আটক

0
838

ফিরোজ আহম্মেদ : ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ৪টি হত্যাসহ ১২ মামলার আসামী ইমলাক (২৩) নামে সন্ত্রাসীকে একটি বিদেশী পিস্তলসহ আটক করেছে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ। রোববার (২৫ নভেম্বর) রাতে ঝিনাইদহ এএসপি কনক কুমার দাসের নেতৃত্বে কালীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) আতিকুর রহমান ও এসআই সম্বিত রায় সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে উপজেলার ভিটাখোলা থেকে তাকে আটক করে। আটক ইমলাক যশোর সদর থানার শালিয়াট গ্রামের আলতাফ হোসেনের ছেলে।

ঝিনাইদহ এএসপি কনক কুমার দাস জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারে যশোরের রকি হত্যা মামলার প্রধান সন্দেহভাজন আসামী ও পেশাদার খুনি ইমলাক কালীগঞ্জে তত্বিপুর ক্যাম্পের পাশে ভিটেখোলা গ্রামে অবস্থান করছে। এমন সংবাদেই রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টার দিকে তিনি সহ কালীগঞ্জ থানার পুলিশ ভিটেখোলা গ্রামে অভিযান চালিয়ে একটি বিদেশী পিস্তলসহ ইমলাককে আটক করে। পুলিশ জানায় আটক ইমলাক যশোরের শীর্ষ সন্ত্রাসী ফিঙ্গে লিটন গ্রুপের সক্রিয় সদস্য। বর্তমানে ফিঙ্গে লিটন পলাতক থাকায় সে ফিঙ্গে আশরাফের সাথে কাজ করে। তার বিরুদ্ধে ৪টি হত্যা, ৩টি অস্ত্র ও ১টি ডাকাতী মামলাসহ বিভিন্ন থানাতে অন্তত ১২ টি মামলা রয়েছে। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে টাকা ভাগা-ভাগিকে কেন্দ্র করে যশোরের রকিকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

উল্লেখ্য, গত (৮ই অক্টবর’১৮) ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ভিটেখালা গ্রামের বিল থেকে অজ্ঞাত (২৫) এক যুবকের লাশ উদ্দার করে কালীগঞ্জ থানার পুলিশ। অজ্ঞাত যুবকের নাম-পরিচয় তৎক্ষনিক ভাবে জানা না গেলেও পরবর্তীতে যশোর বাহাদুর পুর পূর্বপাড়া এলাকার আক্কাচ আলী মোল্ল্যার ছেলে রকি মোল্ল্যা বলে জানা যায়।