স্বাভাবিক জীবনের আশা নিয়ে ঘরে ফেরা আত্মসমর্পনকৃত সুন্দরবনের দস্যু বাহিনীর ৫৭সদস্য

0
361

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দীর্ঘদিনের দস্যুতার জীবন ছেড়ে স্বাভাবিক ও সুন্দর জীবনের প্রত্যয় নিয়ে গত ২৩মে খুলনার লবণচরাস্থ র‌্যাব-৬ কার্যালয়ে সুন্দরবনের ছয় কুখ্যাত জলদস্যু-বনদস্যু বাহিনীর ৫৭ সদস্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁনের কাছে অস্ত্র ও গোলাবারুদ জমা দিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে আত্মসমর্পণ করেন। আত্মসমর্পণের ১৩দিনের মাথায় বাগেরহাট জেলা কারাগার থেকে মঙ্গলবার মুক্ত হয়েছেন সাবেক দস্যু বাহিনীর এ ৫৭জন সদস্য।
এরআগে সোমবার বাগেরহাট জেলা জজ আদালতে তাদের জামিন আবেদন মঞ্জুর হয়। পবিত্র ঈদুল ফিতরের আগে পরিবার পরিজন নিয়ে স্বাভাবিকভাবে ঈদের আনন্দ উপভোগের সুযোগ পেয়ে সাবেক এ দস্যু সদস্যরা সহ তাদের পরিবারের সদস্যরা মহা খুশি। স্বাভাবিক জীবনের আশা নিয়ে আপন ঠিকানায় ফিরেছেন তারা।
এরা হলো-দাদা ভাই বাহিনীর প্রধানসহ ১৫জন, হান্নান বাহিনীর প্রধানসহ ৯জন এবং আমির আলী বাহিনীর প্রধানসহ ৭জন, সূর্য বাহিনীর প্রধানসহ ১০জন, ছোট সামছু বাহিনীর প্রধানসহ ৯জন ও মুন্না বাহিনীর প্রধানসহ ৭জন । গত ২৩মে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন ও র‌্যাব’র মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ’র কাছে অস্ত্র ও গোলা বারুদ জমা দিয়ে তারা আত্মসমর্পণ করেন। এসময় ৫৮টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ১২৮৪রাউন্ড গুলি জমা দেয় বনদস্যু বাহিনীর সদস্যরা। সরকারের কাছে র‌্যাব-৬’র মাধ্যমে এসকল দস্যু বাহিনীর আত্মসমর্পণে মধ্যস্ততাকারী হিসেবে কাজ করেছেন স্থানীয় এক দৈনিক এর সাংবাদিক সোহাগ দেওয়ান ও নিউজ টোয়েন্টিফোর টেলিভিশনের টিম আন্ডার কাভার।