সোনার চর নিয়ে জটিলতায় ক্যাপ্টেন

0
177

টাইমস বিনোদন:
‘মাতৃত্ব’ সিনেমা নির্মাণের মাধ্যমে চলচ্ছিত্র পরিচালক হিসেবে যাত্রা শুরু করেন জাহিদ হোসেন। এ সিনেমায় অভিনয় করে কিংবদন্তি অভিনেতা হুমায়ুন ফরিদী ২০০৪ সালে সেরা অভিনেতা শাখায় জাতীয় চলচ্ছিত্র পুরস্কার লাভ করেন। এরপর এই পরিচালক ‘লীলামš’ন’ নামে সিনেমার কাজ শেষ করেন। যদিও নানা জটিলতায় এখনো তা আলোর মুখ দেখেনি। দীর্ঘ বিরতির পর ২০১৬ সালে ‘সোনার চর’ নামে নতুন একটি সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দেন তিনি এবং গান রেকর্ডিং করেন। চলচ্ছিত্র পরিচালককে বলা হয় ‘ক্যাপ্টেন অব দ্য শিপ’। তার পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করে থাকেন অভিনয়শিল্পী থেকে নৃত্য পরিচালক, ফাইট ডিরেক্টরসহ কলাকুশলীরা। কিন্তু এই ক্যাপ্টেন এখনো ‘সোনার চর’-এ আটকে আছেন। এরপর নতুন কোনো সিনেমার কাজে হাত দেননি। এদিকে নির্মাতা জাহিদ হোসেন সিনেমাটি নিয়ে নতুন পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন। শুধু তাই নয়, ‘সোনার চর’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য চূড়ান্ত করেছেন শহীদুল আলম সাচ্ছু, নাদের চৌধুরী, সুবর্ণা মুস্তাফাকে। সিনেমাটি প্রযোজনা করছেন জাহাঙ্গীর শিকদার। পরিচালক জাহিদ হোসেন বলেন, খুব শিগগির দৃশ্যধারণের কাজ শুরু করব। প্রি-প্রোডাকশনের কাজ শেষ করেছি। এ পরিচালকের ‘লীলামš’ন’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন প্রয়াত চিত্রনায়ক মান্না, মৌসুমী, পপি, শাহনূর, মুক্তি, দীঘি, বাপ্পারাজ, আলীরাজ, আনোয়ারা, শহিদুল আলম সাচ্ছু, মিশা সওদাগর প্রমুখ। চিত্রনায়ক মান্না সিনেমাটির কাজ অসমাপ্ত রেখে আট বছর আগে না ফেরার দেশে চলে যান। মান্নার মৃত্যুর পর অনিশ্চয়তায় পড়ে সিনেমাটি। মান্না ৯০ শতাংশ কাজ শেষ করেছিলেন। বাকি ১০ শতাংশ কাজ পরিচালক ডামি চরিত্র ব্যবহার করে ২০১১ সালে শেষ করেন। কিন্তু আজ পর্যন্ত সিনেমাটি মুক্তি দেওয়া সম্ভব হয়নি। মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সিনেমাটিতে যৌনকর্মীদের কথা বলা হয়েছে। যে কারণে এই সিনেমা প্রদর্শনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। দুইবার নিষেধাজ্ঞার গ-ি পার হলেও শেষ রক্ষা হয়নি।