সুন্দর পরিবেশ মানুষের মনকেও সুন্দর করে দেয়: খুলনা সিটি মেয়র

0
545

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেছেন, সুন্দর পরিবেশ মানুষের মনকেও সুন্দর করে দেয়। সকলের অভ্যাস, আচরণ ও ভাবনা-চিন্তা উন্নত হলে আমাদের চারপাশের পরিবেশ উন্নত করা সম্ভব। তাই সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমাদের নগরীতে সুন্দর পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে।

সিটি মেয়র আজ ৩১ অক্টোবর সোমবার সকালে কারিতাস-এর বিশপ মাইকেল এডি রোজারিও অডিটরিয়ামে ‘ফাইনাল রিভিউ’ শীর্ষক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করছিলেন। ‘জলবায়ু পরিবর্তনে প্রভাবিত অভ্যন্তরীণ অভিবাসীদের জন্য নগর ব্যবস্থাপনা’ প্রকল্পের আওতায় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ‘কারিতাস’ এ কর্মশালার আয়োজন করে। জিআইজেড এর কারিগরি সহযোগিতায় খুলনা সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধানে কারিতাস নগরীতে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করেছে। প্রকল্পের আঞ্চলিক কমিটির সদস্যবৃন্দ, কাউন্সিলর, পিআইসি মেম্বর, প্রজেক্ট স্টাফ, সিডিসি লিডার এবং জিআইজেড প্রতিনিধিগণ কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।

সিটি মেয়র পরিবেশ সুরক্ষায় আবর্জনা ড্রেনে না ফেলে নির্দিষ্ট স্থানে ফেলার অভ্যাস গড়ে তোলার আহবান জানিয়ে বলেন, প্রকল্প কর্তৃক গৃহীত সকল কার্যক্রম এবং নির্মিত অবকাঠামো পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বাস্তবায়ন করা হয়েছে। অবকাঠামোগুলির সুষ্ঠু রক্ষণাবেক্ষনের ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, এ জন্য স্থানীয় কমিউনিটি কমিটির মাধ্যমে সুবিধাভোগীদের নিকট মাসিক হারে টাকা সংগ্রহ ও সঞ্চয় পূর্বক এগুলি রক্ষণাবেক্ষণে ব্যয় করা হলে বাস্তবায়িত প্রকল্পগুলি স্থায়ীত্ব পাবে।

কেসিসি’র কাউন্সিলর মুহাঃ আমান উল্লাহ আমান, মোঃ মাহবুব কায়সার, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর আনজিরা খাতুন, রাবেয়া ফাহিদ হাসনাহেনা, রোকেয়া ফারুক, চীফ প্লানিং অফিসার আবির উল জব্বার, কারিতাসের সন্তোষ দাস, তাপস সরকার, পরিতোষ চক্রবর্তী, জিআইজেড প্রতিনিধি মাইকেল চঞ্চল মন্ডল, জিনাত আরা, নাসিমা আক্তার প্রমুখ কর্মশালায় বক্তৃতা করেন।

উল্লেখ্য, প্রকল্পের আওতায় বিগত ৬ মাসে ২ কোটি ৪৪ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নগরীর ১৪, ১৬, ১৭, ২২, ৩০ ও ৩১নং ওয়ার্ডের ৮টি স্লাম এলাকায় পাকা রাস্তা, নলকূপ স্থাপন, পানি নিস্কাশন ও টয়লেট নির্মাণ করা হয়েছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি