সুন্দরবনে র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে তিন জলদস্যু নিহত : উদ্ধার আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলাবারুদ

0
411

শেখ মোহাম্মদ আলী, শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি, খুলনাটাইমস:
পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের মাঝের চর এলাকায় র‌্যাব-৮’র সাথে বন্দুক যুদ্ধে জলদস্যু মুন্না বাহিনীর প্রধানসহ ৩জন নিহত হয়েছে। পরে ঘটনাস্থল তল্লাশী চালিয়ে গুলি ও আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়। বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।
র‌্যাব-৮ সুত্রে জানা যায়, বুধবার সকালে সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের মাঝের চর এলাকায় সদ্য আত্মপ্রকাশকৃত মুন্না বাহিনী অবস্থান করছে, এমন সংবাদে র‌্যাব-৮’র অধিনায়ক মেজর ইউ:কমান্ডার হাসান ইমন আল-রাজিবের নেতৃত্বে একটি দল ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় বনদস্যুরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি বর্ষন করে। এসময় উভয়ের মধ্যে প্রায় ঘন্টা ব্যাপী বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পরে দস্যুরা টিকতে না পেরে দস্যুরা গহীন বনে পালিয়ে যায়। পরে র‌্যাব ঘটনাস্থল তল্লাশী চালিয়ে বাহিনী প্রধান স্বপন সহ তিনজনের মৃত দেহ উদ্ধার করে।

নিহত জলদস্যুরা হল- নিজামদ্দিন স্বপন ওরফে প্যাদা (৪৫), মোঃ লিটন খন্দকার (৪৫), মোঃ সাগর খা (৫০) কে জেলারা সনাক্ত করে। তবে তাদের পূর্ণ ঠিকানা জানা যায়নি। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে ০২টি একনালা বন্দুক, ০১টি কাটা রাইফেল, ০৪টি পাইপগান, ২৪ রাউন্ড বন্দুকের তাজা কার্তুজ, ১৪ রাউন্ড বন্দুকের খালী খোসা, ০৩টি গুলি রাখার বান্ডুলিয়ার, ০৩টি দেশীয় তৈরি রামদা, ০২টি দেশীয় ধারালো ছুরি উদ্ধার করে।
এ ব্যাপারে র‌্যাব-৮ এর সদর কোম্পানী কমান্ডার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ জসিম জানান, নিহত দস্যুদের লাশ ও উদ্ধারকৃত আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলাবারুদ পাথরঘাটা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় পাথরঘাটা থানায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। #