সুন্দরবনে জেলেদের চরে নামিয়ে মাছসহ দুটি ট্রলার ছিনিয়ে নিয়েছে দস্যুরা

0
616

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি, খুলনাটাইমস:
বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন থেকে গত দু’দিনে মাছসহ জেলেদের দুটি ফিশিং ট্রলার নিয়ে গেছে বনদস্যু বাহিনী। ওই দুই ট্রলারে থাকা ১০ জেলেকে সুন্দরবনের একটি চরে নামিয়ে দিয়ে ট্রলার দুটি নিয়ে যায় দস্যুরা। কোস্টগার্ড ও বনবিভাগের যৌথ অভিযান চলাকালে বৃহস্পতিবার সকালে দরজার খাল সংলগ্ন চর থেকে ওই জেলেদের উদ্ধার করা হয়েছে।
বনবিভাগ সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ও ২৩ জানুয়ারি রাতে শরণখোলা রেঞ্জের সুপতি স্টেশনের চাঁন্দেশর টহল ফাঁড়ি ও কচিখালী স্টেশনের মধ্যবর্তী দরজার খাল এলাকায় এ ট্রলার ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। ট্রলার উদ্ধারে কোস্টগার্ড ও বনবিভাগের যৌথ অভিযান চলছে।
বনবিভাগের সুপতি স্টেশন কর্মকর্তা (এসও) মো. আব্দুল মান্নান জানান, গত ২৪ জানুয়ারি রাতে পাথরঘাটা উপজেলার জ্ঞানপাড়া গ্রামের জাকির ডাক্তার নামের এক মৎস্য ব্যবসায়ী নাম বিহিন একটি ফিশিং ট্রলার নিয়ে চাঁন্দেশ্বর টহল ফাঁড়ি সংলগ্ন দরজার খালে মাছ ধরছিলো। রাত ১০টার দিকে অজ্ঞাত একটি দস্যু বাহিনীর ১০-১২ জন সদস্য জেলেদের ট্রলারে হানা দেয়।
এসময় দসু্যৃরা ট্রলারে থাকা পাঁচ জেলেকে একটি চরে নামিয়ে দিয়ে মাছসহ ট্রলারটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এর আগেরদিন ২৩ জনুয়ারি রাতে ওই একই এলাকা থেকে পাথরঘাটা উপজেলার ট্যাংরা গ্রামের কবির হুজুর নামের অপর এক মৎস্য ব্যবসায়ীর নাম বিহিন ট্রলারটি নিয়ে যায় দস্যুরা। তবে, ওই দুই ট্রলারে কি পরিমান মাছ ছিলো তা জানা যায়নি।
সুপতি স্টেশন কর্মকর্তা জানান, জেলেদের ট্রলার উদ্ধারে কোস্টগার্ড ও বনবিভাগের অভিযান চলাকালে দস্যুদের ব্যবহৃত একটি ট্রলার উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার বিকেলে অভিযানকারীরা চাঁন্দেশ্বর এলাকায় গেলে দস্যুরা তাদের ট্রলার ফেলে বনের ভেতর পালিয়ে যায়। ##