সাতক্ষীরায় ৪ দিন ব্যাপী আয়কর মেলার উদ্বোধন

0
607

সেলিম হায়দার,সাতক্ষীরা :
“জনকল্যাণে রাজস্ব, উন্নয়নের অক্সিজেন রাজস্ব” সুখী স্বদেশ গড়তে ভাই আয়করের বিকল্প নাই, সমৃদ্ধির সোনালী দিন আনতে হলে আয়কর দিন” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সাতক্ষীরায় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ৪দিন ব্যাপি আয়কর মেলা ২০১৭ উদ্বোধন করা হয়েছে।
শনিবার সকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে জনসাধারণের মধ্যে আয়কর বার্তা পৌছে দেওয়া, কর বান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি করা, সর্বোপরি করদাতার সংখ্যা বৃদ্ধি ও প্রদান কার্যক্রম সহজ করার লক্ষ্যে কর অঞ্চল খুলনা, সাতক্ষীরা সার্কেল-১৩ এর উদ্যোগে কর অঞ্চল খুলনা’র যুগ্ম-কর কমিশনার মো. মঞ্জুর আলমের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি।
আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মো. মহিউদ্দিন, জেলা পুলিশ সুপার মো. আলতাফ হোসেন, সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর বিশ্বাস সুদেব কুমার, সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আব্দুল খালেক, সাতক্ষীরা চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সভাপতি আব্দুল মান্নান, আয়কর আইনজীবী সমিতি’র সভাপতি এড. মো. সামছুল হক। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সার্কেল-১৩ সাতক্ষীরা সহকারী কর কমিশনার সামছুজ্জামান।
এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেরিনা আক্তার, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মারুফ আহম্মদ, জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ হারুন উর রশিদ, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক, এড. অনিত মুখার্জীসহ জেলার অসংখ্য করদাতাগণ। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন অধ্যাপক মো. রেজাউল করিম। আলোচনা সভা শেষে অতিথিবৃন্দ বেলুন ও ফেস্টুন উড়িয়ে ৪দিন ব্যাপি এ মেলার উদ্বোধন করেন।

প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে সাংসদ বলেন, ‘আয়কর হচ্ছে দেশের উন্নয়নের সোপান। আয়কর প্রদান করলে সামাজিক ও ব্যক্তিগত মর্যাদা বৃদ্ধি পায়। যোগ্য ব্যক্তিদের সঠিক সময়ে কর প্রদান করতে হবে। নিয়মিত কর প্রদান করে দেশের উন্নয়নে শরীক হতে আহবান জানান। দেশের উন্নয়ন হয় জনগণের আয়কর ও ট্র্যাক্সের আদায়কৃত অর্থ থেকে। তাই আয়কর সকলের যথাসময়ে সঠিকভাবে প্রদান করা উচিত। বর্তমান সরকারের আমলে যে উন্নয়ন হয়েছে তা বিগত কোন সরকারের আমলে হয় নাই। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সরকার উন্নয়নের সরকার। দেশের উন্নয়নের স্বার্থে সকলকে কর প্রদানে উৎসাহিত করতে হবে এবং জনসচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে।’