সাতক্ষীরায় যৌতুকের জন্য গৃহবধূ খুন

0
596

 

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি,খুলনা টাইমস :
বাবার বাড়ি থেকে যৌতুকের টাকা না আনায় সাতক্ষীরায় এক গৃহবধূকে নির্যাতনের পর শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার রাত ১০টার দিকে সাতক্ষীরা শহরের পারকুকরালি এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। হত্যায় জড়িত অভিযোগে পুলিশ গৃহবধূর স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে।
নিহতের নাম জুলেখা খাতুন (২৭)। তিনি সাতক্ষীরা শহরের পারকুকরালির ট্রাক চালক আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী।
নিহত জুলেখার বাবা কওছার আলী দফাদার জানান, ২০০৯ সালে তার মেয়ে জুলেখার সঙ্গে সাতক্ষীরা শহরের পারকুকরালির আজিয়ার রহমানের ছেলে আব্দুর রাজ্জাকের বিয়ে হয়। বর্তমানে তাদের ঘরে রাজ নামের এক ছেলে আছে। রাজ পারকুকরালি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্র।
কওছার আলী বলেন, বিয়ের পর থেকে যৌতুকের টাকার জন্য রাজ্জাক বিভিন্ন সময়ে জুলেখাকে মারপিট করতো। এ পর্যন্ত কয়েক দফায় তাকে ৬০ হাজার টাকা যৌতুক হিসেবে দেয়া হয়। গতকাল আবারও বাবার বাড়ি থেকে টাকা আনতে বললে জুলেখা অস্বীকৃতি জানায়। এর একপর্যায়ে তাকে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ তার।
সাতক্ষীরা সদর থানার উপপরিদর্শক হুমায়ুন কবীর জানান, জুলেখার হাতে, পায়ে ও শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে নির্যাতন চালিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ রবিবার সকালে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতলের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা কওছার আলী দফাদার বাদী হয়ে জামাতা আব্দুর রাজ্জাক, তার বোন মাফুজা, ভাই ফারুক হোসেন, আনোয়ারুল ইসলাম ও তার মা লায়লী বেগমের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি মামলা করেছেন। হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে নিহতের স্বামী আব্দুর রাজ্জাককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।