সাংবাদিকের সহায়তায় মাকে খুঁজে পেলেন সন্তানেরা

0
636

মইনুল ইসলাম, আশাশুনি(সাতক্ষীরা) থেকে:
সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার কাদাকাটি থেকে সাংবাদিক সুব্রত কুমার দাশের সহায়তায় দীর্ঘদিন হারানো মাকে খুঁজে পেলেন সন্তানেরা। গোপালগঞ্জ জেলার কোটালিপাড়া উপজেলার রাধাগঞ্জ ইউনিয়নের নারিকেলবাড়ি গ্রামের মৃত প্রমানন্দ বৈদ্যের স্ত্রী, গোলাপী বৈদ্য(৮০) মানসিক প্রতিবন্ধী।
গত ৫ ই ফেব্রুয়ারি পাশের গ্রামে মেয়ের বাড়ীতে বেড়াতে যাওয়ার জন্য বাহির হন আর বাড়িতে ফেরেননি। গোলাপীর পরিবার দীর্ঘদিন অনেক খোঁজাখুজি করে তাদের মাকে পাওয়ার আশা ছেড়েই দিয়েছিলেন। হারিয়ে যাওয়া মাকে কাদাকাটিতে দেখে সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার রাজাপুর ইউ,বি,আর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক( বিজ্ঞান) সাংবাদিক সুব্রত দাশের প্রচেষ্টায় তার ছেলে সুশান্ত বৈদ্য ও প্রশান্ত বৈদ্যে জননীকে ফিরে পেয়েছেন ।
সাংবাদিক সুব্রত দাশ বলেন, গত শনিবার সাতক্ষীরা থেকে ফিরে যখন সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি উপজেলার কাদাকাটি বাজারে পৌঁছে তখন একটি দোকানের সামনে বসে থাকতে দেখে এগিয়ে যায় তার পাশে। জানার চেষ্টা করি ঐ বৃদ্ধার নাম পরিচয়। তিনি প্রথমে কিছু না বলে শুধু কাঁদতে থাকেন এবং বলতে লাগেন আমি বাড়ি যাব। বৃদ্ধার কান্নায় ব্যাথিত হয়ে অনেক চেষ্টায় ঐ বৃদ্ধার কিছু পরিচয় জোগাড় করতে সক্ষম হই।
তিনি আরও বলেন, ঐ বৃদ্ধার কথামত গোপালগঞ্জ জেলার কোটালিপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জকে মোবাইলে বিষয়টি অবহিত করলে তিনি গুরুত্বের সাথে বিষয়টি আমলে নিয়ে তদন্ত করে রাতেই তার পরিচয় নিশ্চিত করেন। রবিবার সকালে বৃদ্ধার দুই পুত্র কাদাকাটি বাজারে শত শত লোকের মাঝে হাজির হয়ে দীর্ঘদিন পর মাকে খুঁজে পেয়ে আবেগপ্লুত হয়ে যান। বৃদ্ধার পুত্রদ্বয়ের মাতৃভক্তি দেখে শত শত জনতা তাদের সাধুবাদ জানান। পরে তারা তার মাকে বাড়িতে নিয়ে যান।