সবুজ পৃথিবী গড়তে ধরণীর কাছে আমাদের দায়বদ্ধতা

0
536

এম সাইফুল ইসলাম
যে পৃথিবীতে আমাদের জন্ম, যে পৃথিবী আমাদের মায়ের মতো আগলে রেখেছে শতাব্দীর পর শতাব্দী, সেই পৃথিবীর প্রতি আমাদের ভালোবাসা ও সচেতনতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে প্রতি বছর ২২শে এপ্রিল পালিত হয় বিশ্ব ধরিত্রী দিবস ।
বর্তমানে আধুনিক পৃথিবীতে জলবায়ু পরিবর্তন ও এর ফলে সৃষ্ট পরিবেশ বিপর্যয় একটি বড় ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে ।পরিবেশগত সমস্যা ও তার সমাধান নিয়ে কথা বলতে গেলে যে বিষয়টি মাথায় প্রথমে আসা উচিৎ, তা হচ্ছে ‘সবুজ নগরী’।
গত কয়েকদিনের অসহ্য গরমে নগরবাসীর নাভিশ্বাস উঠে গেছে । কিন্তু আমরা যদি আমাদের শহরকে আরও সবুজ করতে পারতাম, তাহলে বোধ করি এতোটা ভোগান্তি পোহাতে হতো না আমাদের। সবুজ নগরীর প্রত্যাশা আমাদের সকলের। কিন্তু যান্ত্রিকতার মোহ আমাদের এতোটাই আচ্ছন্ন করে রেখেছে যে সেই সবুজ নগরীর প্রত্যাশা আমাদের কাছে আজ সুদূর স্বপ্ন!
আমাদের পরিবেশকে আরও সুন্দর শীতল ও সবুজ করতে না পারার দায় আমাদের সকলের। রাজনৈতিক, সামাজিক ও ব্যক্তিগতভাবে আমরা আমাদের পরিবেশ নিয়ে আসলে কতোটা সচেতন? আমরা যে কোন সমস্যার জন্য মূলত সরকার ও নীতি-
নির্ধারকদের দায়ী করে থাকি। আপনাকে যদি এখন প্রশ্ন করা হয়, আপনি এখন পর্যন্ত কতোটি গাছ নিজ হাতে লাগিয়েছেন?
হয়তো, আমাদের বেশিরভাগই কোন উত্তর দিতে পারব না। ব্যক্তিগতভাবেই যদি আমরা শুরু করতে পারি, তাহলে আমার আপনার সাথে আরও অনেককেই আমরা এই ভাল কাজের জন্য খুঁজে পাব। আমরা কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করি ওয়েনগেরি মাথাইর কথা, যিনি বৃক্ষরোপণে অবদানের কারণে আমাদের মাঝে স্মরণীয় হয়ে রয়েছেন। আমাদের দেশেও সামাজিক আন্দোলন বর্তমানে অনেক গতি পেয়েছে। আমি, আপনি গরমে অতিস্ট হয়ে ঘরের এসি চালিয়ে বসে না থেকে যদি এই আন্দোলনে নিজেকে সম্পৃক্ত করতে পারি, তাহলে হয়তো ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে একটি সুন্দর পৃথিবী উপহার দিয়ে যেতে পারব।
সভাপতি
উপকূ’ল বাচাও আন্দোলন খুলনা