শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ ‘এ’ দলের ম্যাচ ড্র

0
374

স্পোর্টস ডেস্কঃ

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের মধ্যকার চারদিনের ম্যাচটি নিষ্প্রাণ ড্র হয়েছে। শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দল প্রথমে ব্যাট করে তাদের প্রথম ইনিংসে ৪৪৯ রান সংগ্রহ করে ইনিংস ঘোষণা করে। জবাবে বাংলাদেশ ‘এ’ দল মোসাদ্দেক ও সাব্বিরের সেঞ্চুরিতে ৪১৪ রান তোলে। ৩৫ রানের লিড নিয়ে শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দল দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে। ৩ উইকেট হারিয়ে ২৬৭ রান তোলার পর উভয় দল ড্র মেনে নেয়।

এই ইনিংসে শ্রীলঙ্কার হয়ে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান দিমুথ করুণারতে। ১৬৫ বল খেলে ২৩টি চার ও ১ ছক্কায় ১৬১ রান করে নাজমুল ইসলাম অপুর বলে আউট হন। প্রথম ইনিংসে করেছিলেন ৬০ রান। প্রথম ইনিংসে ১৬৮ রান করা লাহিরু থ্রিমান্নে এবার অপরাজিত ৬৭ রান করেন। ৩০ রান করেন লাহিরু মিলান্থা।

তার আগে ৪ উইকেট হারিয়ে ৩৬০ রান তুলে তৃতীয় দিন শেষ করা বাংলাদেশ ‘এ’ দল আজ শুক্রবার আবার ব্যাট করতে নামে। দ্বিতীয় দিন শেষে ১৪৪ রানে অপরাজিত থাকা সাব্বির রহমান ও জাকির হাসান আজ চতুর্থ দিনে ব্যাট করতে নামেন। সাব্বির তার ব্যক্তিগত সংগ্রহে ২১ রান যোগ করে আউট হন। তিনি আউট হওয়ার পর দ্রুতই উইকেট হারাতে থাকে ‘এ’ দল। শেষ পর্যন্ত ১৩৫ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ৪১৪ রান তোলে বাংলাদেশ ‘এ’ দল।

সাব্বির রহমান ২৮৭ বল খেলে ১৬টি চার ও ২ ছক্কায় ১৬৫ রান করেন। তিন বছর পর তিনি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে সেঞ্চুরির দেখা পেলেন। এর আগে ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে ভারতের ‘এ’ দলের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি। সাব্বির রহমান ছাড়াও বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে সেঞ্চুরি করেছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। তিনি ২৪৩ বল খেলে ৯ চার ও ৩ ছক্কায় ১৩৫ রান করে তৃতীয় দিনে আউট হয়েছিলেন। সাব্বির রহমানকে সঙ্গে নিয়ে চতুর্থ উইকেটে দলীয় সংগ্রহে ২০৯ রান যোগ করেছিলেন তিনি।

বল হাতে শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের হয়ে ৫টি উইকেট নেন লাকসান সান্দাকান। প্রবাধ জয়সুরিয়া নেন ৩টি উইকেট। ১টি করে উইকেট নেন নিসালা থারাকা ও চারিথ আসালঙ্কা।