শেখ শহীদুল হক ছিলেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়া ত্যাগী নেতা : আ’লীগ

0
624

আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ বলেছেন, শেখ শহীদুল হক ছিলেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়া এক ত্যাগী নেতা। তিনি নিজেকে সব সময় আড়াল করে রাখতেন। তিনি ছাত্র জীবনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর নির্দেশে দেশ ও জাতির জন্য ত্যাগ স্বীকার করে বাঙালির অধিকার আদায়ে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করার কাজে নিজেকে লিপ্ত ছিলেন। তিনি এ অঞ্চলের মানুষকে মুক্তিযুদ্ধে সংগঠিত করে যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলেন। শহীদুল হক, হুমায়ূন কবির বালু, মাহাবুবুল আলম হিরণসহ খুলনায় ষাটের দশকের ছাত্রনেতাদের সমন্বয়ে মুক্তিযুদ্ধের কাজ করেছিলেন। দেশ স্বাধীনের পরে তিনি চাকুরীতে যোগদান করে দলের নেতাকর্মীদের নিভৃতে সাহায্য করতেন। তিনি কখনও প্রচার মাধ্যমে নিজেকে প্রকাশ করেননি। সদ্য স্বাধীন দেশে মানুষের কষ্টে তিনি পাশে গিয়ে দাড়িয়েছেন। তার মত ত্যাগী নেতার কারনে আজ দল রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায়। নেতৃবৃন্দ দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ত্যাগই দেশ ও জাতির কল্যাণ বয়ে আনবে। সেজন্যে দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পুনরায় সরকার গঠন করে দেশের চলমান উন্নয়ন অব্যহত রাখতে হবে।
মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় দলীয় কার্যালয়ে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক সাবেক ছাত্রনেতা শেখ শহিদুল হকে ১৪তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় এসব কথা বলেন।
মহানগর শ্রমিক লীগ আয়োজিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রিয় নেত্রী ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশিদ, এমডিএ বাবুল রানা, নুর ইসলাম বন্দ,  শেখ মো. ফারুক আহমেদ, শ্যামল সিংহ রায়, মো. মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, এ্যাড. মো. সাইফুল ইসলাম, একেএম সানাউল্লাহ নান্নু, মো. মশিউর রহমান, মো. মোতালেব মিয়া, সৈয়দ এমদাদুল হক, মুন্সি হেকমত আলী, মো. বাবুল, শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন।
খুলনা মহানগর শ্রমিক লীগ সভাপতি আবুল কাশেম মোল্লার সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা শেখ হায়দার আলী, এ্যাড. রজব আলী সরদার, কামরুজ্জামান জামাল, শেখ মখলুকার রহমান, শফিকুর রহমান পলাশ, এমরান হোসেন ইমু, মো. কামরুল ইসলাম, মো. নাসিরুজ্জামান, মল্লিক নওশের আলী, শেখ সরোয়ার হোসেন, কাজী আব্দুল ওহাব, আব্দুর রহিম খান, আসাদুজ্জামান মিনা, আব্দুর রশিদ শিকদার, খোন্দকার জাহাঙ্গীর আলম, শরীফ মোর্ত্তুজা আলী, আব্দুল মান্নান শেখ, শেখ মো. রমজান, মো. মনিরুল ইসলাম, হুমায়ূন কবীর খান হিমু, মো. শরীফুল ইসলাম, মো. জামাল হোসেন, মো. রফিকুল ইসলাম, নাসরিন আক্তার, শেখ আকবর হোসেন, তারিকুল ইসলাম বারেক, শেখ আনিসুর রহমান, মো. মতিয়ার রহমান, মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, মো. আতাহার উদ্দিন মাস্টার, মো. মাহবুবুর রহমান, শেখ মো. মোজাম্মেল হোসেন, মো. সেলিম, মো. বায়তুল ইসলাম, মো. হামিদ উল্লাহ, মো. আল আমিন, মো. মিখাইল, মো. শাহ আলম মৃধা, মো. মাসুদ পারভেজ, সজল বাড়ৈই, মো. সোহান হোসেন, মো. মিরাজ, মো. তুফান, মো. স্বপন, জনি বসু, মো. রাসেদ, মো. অনি, চয়ন বালাসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।
স্মরণ সভা শেষে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি