শেখ শহীদুল হক ছিলেন আ’লীগের নিভৃত নিবেদিত নেতা : শেখ হারুন

0
423

খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও সাবেক বিরোধী দলীয় হুইপ শেখ হারুনুর রশীদ বলেছেন, শেখ শহীদুল হক ছিলেন আওয়ামী লীগের নিভৃত নিবেদিত নেতা। ষাটের দশকের ছাত্র রাজনীতি থেকে শুরু করে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণের মধ্যদিয়ে খুলনায় তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতি প্রতিষ্ঠিত করার কাজে নিজেকে আত্ম নিয়োগ করেন। তিনি কখনও নিজের বা নিজের পরিবারের স্বার্থে কথা চিন্তা করেন নি। তিনি চাকুরী করে দল পরিচালনা করতেন। তার বেতনের টাকা সংসারে ব্যয় না করে তিনি দলের পেছনে ব্যয় করতেন। আজ তার মত ত্যাগী নেতা পাওয়া কষ্ট। তিনি দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, শেখ শহীদের মত ত্যাগের আদর্শ ধারণ করতে হবে। নিজেদের ত্যাগ স্বীকার কওে দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনাকে পুনরায় রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আনতে হবে।
রবিবার সন্ধ্যা ৭টায় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে খুলনা মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত সাবেক ছাত্রনেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ শহীদুল হকের ১৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময়ে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগ নেতা এমডিএ বাবুল রানা, এ্যাড. নিমাই চন্দ্র রায়, অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু। স্মরণ সভা পরিচালনা করেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ দপ্তর সম্পাদক মো. মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ।
এসময়ে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা কামরুজ্জামান জামাল, মো. জাহাঙ্গীর হোসেন খান, মফিদুল ইসলাম টুটুল, এ্যাড. মো. সাইফুল ইসলাম, সিদ্দিকুর রহমান বুলু বিশ্বাস, তসলিম আহমেদ আশা, রনজিত কুমার ঘোষ, সরদার জাকির হোসেন, শফিকুর রহমান পলাশ, মো. লিটন মুন্সি, শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন, এস এম আসাদুজ্জামান রাসেল, মো. ইমরান হোসেন, চ.ম. মুজিবর রহমান, ফয়েজুল ইসলাম টিটো, গোপাল চন্দ্র সাহা, মো. জাকির হোসেন হাওলাদার, মো. শিহাব উদ্দিন, এ্যাড. এ কে এম শাহজাহান কচি, এ্যাড. আহসান হাবিব, মুজিবুর রহমান মুজিব, সোহেল বিশ্বাস, আহনাফ অর্পন, মাসুদ হোসেন সোহান, সজল বাড়ৈ, মো. শাহীন আলমসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি#