শিশুদের কৃমি নিয়ন্ত্রণে সচেতন হতে হবে : মেয়র খুলনা সিটি

0
473

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
খুলনা সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে মহানগরীতে জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ (৪ থেকে ৯ নভেম্বর) ২০১৭ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে। সিটি মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান আজ ৪ নভেম্বর (শনিবার) সকাল সাড়ে ৯ টায় নগরীর খালিশপুরস্থ দক্ষিণ কাশিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে প্রধান অতিথি হিসেবে শিশুদের কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানোর মধ্য দিয়ে মহানগরীতে এ কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সিটি মেয়র শিশুদের জাতির ভবিষ্যৎ কর্ণধর হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, প্রত্যেক শিশুর সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা দরকার। তিনি বলেন, অতিরিক্ত কৃমি শিশুদের জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে দাড়ায়। সে জন্য শিশুদের কৃমি নিয়ন্ত্রণে যতœশীল ও সচেতন হতে হবে। মহানগরীতে কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ সফল করার জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট সকলকে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনের আহবান জানান।

কেসিসি’র কাউন্সিলর মোঃ ফারুক হিল্টনের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন কেসিসি’র প্যানেল মেয়র রুমা খাতুন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য রক্ষা ব্যবস্থা স্থায়ী কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর এ্যাড. শেখ জাহাঙ্গীর হুসাইন হেলাল, কাউন্সিলর মোঃ সুলতান মাহমুদ পিন্টু, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর রহিমা আক্তার হেনা, রোকেয়া ফারুক, স্বাস্থ্য বিভাগ-খুলনার সহকারী পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. সৈয়দ জাহাঙ্গীর হোসেন ও সহকারী থানা শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আলমগীর হোসেন। স্বাগত বক্তৃতা করেন কেসিসি’র প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এ কে এম আব্দুল্লাহ। অন্যান্যের মধ্যে কেসিসি’র সাবেক কাউন্সিলর শাহিনুল ইসলাম পাখি, সমাজসেবক এ্যাড. ফজলে হালিম লিটন, সৈয়দ হাসান উল্লাহ বুলবুল, অধ্যাপক রেজাউল হক, কেসিসি’র স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. স্বপন কুমার হালদার, সহকারী স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শরিফ শাম্মিউল ইসলাম, সহকারী প্রকৌশলী শেখ মোহাম্মদ হোসেন, কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক শেখ মহিউদ্দিন হোসেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোসাঃ তৌহিদা আফরোজ প্রমুখ বক্তৃতা করেন ও উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, প্রথম ধাপে (৪ থেকে ৯ নভেম্বর পর্যন্ত) প্রাথমিক পর্যায়ের মহানগরীর ৪শ ৯৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫ থেকে ১২ বছর বয়সী ৯৩ হাজার ৮শ ৭২ জন এবং দ্বিতীয় ধাপে (১৬ থেকে ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত) মাধ্যমিক পর্যায়ের ৯৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১২-১৬ বছর বয়সাী ৪৮ হাজার ৯’শ ১ জন শিক্ষার্থীকে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।