শিক্ষার্থীরা আগামীতে বিশ্বকে প্রতিনিধিত্ব করবে : খুলনা বিভাগীয় কমিশনার

0
508

তথ্যবিবরণী : জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে বিভাগীয় পর্যায়ে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান মঙ্গলবার দুপুরে খুলনা সরকারি মহিলা কলেজ অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া।

প্রধান অতিথি বিভাগীয় কমিশনার বলেন, ২০০৯ সালে বর্তমান সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই শিক্ষাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে আসছে। যার একটি প্রমাণ হলো পহেলা জানুয়ারি সকল বিদ্যালয়ে প্রায় ৩৫ কোটি বিনামূল্যে বই বিতরণ। নতুন প্রজন্মকে যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে এবং সঠিক শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে। এরাই আগামীতে বিশ্বকে প্রতিনিধিত্ব করবে। শিক্ষার্থীরা দেশের সম্পদ। তিনি বলেন, মাদক, সন্ত্রাস, ইভটিজিং এবং বাল্যবিয়েকে সামাজিকভাবে বয়কট করতে হবে। অচিরেই খুলনা অঞ্চলকে বাল্যবিবাহমুক্ত ঘোষণা করা হবে। গত ১০ বছরে দেশের প্রতিটি খাতে বিপ্লব ঘটেছে। এসডিজি অর্জন করতে হলে মানবসম্পদ তৈরি করতে হবে। শুধু পড়াশুনা শিখালেই হবে না, শিক্ষার্থীদের নীতি ও নৈতিকতা শিক্ষা দিতে বিভাগীয় কমিশনার শিক্ষকদের প্রতি আহবান জানান।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর খুলনা অঞ্চলের পরিচালক প্রফেসর শেখ হারুনর রশীদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন খুলনা সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর রওশন আক্তার, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর কলেজ শাখার উপপরিচালক শেখ মোস্তাফিজুর রহমান এবং জেলা শিক্ষা অফিসার খন্দকার রুহুল আমিন। স্বাগত জানান মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর খুলনা অঞ্চলের সহকারী পরিচালক (কলেজ) মোঃ ইনামুল ইসলাম। এসময় বিভিন্ন স্কুল-কলেজের প্রধান, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। খুলনা মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

পরে প্রধান অতিথি বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে ক্রেস্ট বিতরণ করেন।

জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে ১৪টি বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় খুলনা বিভাগের ১০ জেলার ৮শত ৯০ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে অনুষ্ঠানে ৮৯ জন শিক্ষার্থী ও শিক্ষককে বিভিন্ন ইভেন্টে ক্রেস্ট প্রদান করেন। শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান (স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি), শ্রেষ্ঠ শ্রেণি শিক্ষক, শ্রেষ্ঠ জেলা শিক্ষা অফিসার, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এবং শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থীকে ক্রেস্ট প্রদান করেন।