শাকিবের দুই প্রযোজক মুখোমুখি, ‘সুপার হিরো’ ঠেকাতে তৎপরতা

0
514

অনলাইন ডেস্কঃ

আসন্ন ঈদকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে চলচ্চিত্র মুক্তি দেওয়ার প্রস্তুতি। এবারের ঈদে শাকিব খানের দুটি ছবি মুক্তির অপেক্ষায় আছে- একটি হলো উত্তম আকাশ পরিচালিত ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া, নোয়াখাইল্যা মাইয়া’, আরেকটি ছবি আশিকুর রহমান পরিচালিত ‘সুপার হিরো’।

সম্প্রতি ‘সুপার হিরো’ ছবির বিরুদ্ধে নিপা এন্টারপ্রাইজ নামের একটি প্রতিষ্ঠান তথ্য মন্ত্রণালয়ে আভিযোগ করেছে। অভিযোগপত্রে সরকারি অনুমতি ছাড়া অস্ট্রেলিয়ায় শুটিং করার কারণে ‘সুপার হিরো’কে সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র না দেওয়ার আহ্বান করা হয়। অভিযোগপত্রে বলা হয়, ‘সুপার হিরো নামক ছবিটি সরকারি অনুমতি ব্যতিত, সরকারের রাজস্ব ও ভ্যাট ফাঁকি দিয়ে অবৈধ পথে দেশ থেকে টাকা নিয়ে ২২/০১/২০১৮ হইতে ১০/০২/২০১৮ ইং পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়া সুটিং করিয়া আসিতেছে এবং ছবিটি আগামী ঈদুল ফিতরে মুক্তি দেওয়ার প্রস্তুতিও গ্রহণ করিয়াছে। এতে করে আমরা সাধারণ প্রযোজকরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি। সুপার হিরো নামক ছবিটি নিয়ম না মানার কারণে সেন্সর সনদপত্র পাওয়ার যোগ্যতা হারিয়েছে।’

‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া, নোয়াখাইল্যা মাইয়া’ ছবিটি প্রযোজনা করেছেন সেলিম খান। প্রযোজক সেলিম খানের মেয়ে সেলিনা বেগমের প্রতিষ্ঠান হলো নিপা এন্টারপ্রাইজ। এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতির অফিস সেক্রেটারি সোমেন্দ্র বাবু। নিপা এন্টারপ্রাইজ থেকে গত ৩ মে মন্ত্রণালয়ে অভিযোগপত্র পাঠানো হয়। আর মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে চিঠিটি গ্রহণ করা হয় গত ৭ মে।

‘সুপার হিরো’ ছবিটি প্রযোজনা করেছে হার্টবিট প্রোডাকশন। প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার তাপসি ঠাকুর এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘বাংলাদেশে এখন চলচ্চিত্র এগিয়ে যাচ্ছে। এমন সময় একটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানকে আরেকটি প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতা করা উচিত, কিন্তু আমাদের বেলায় এসব কী শুরু হলো? ঈদের সময় আমার ছবিটি আটকানোর জন্যই কেউ এমন অভিযোগ করেছেন। আমার মনে হয় ঈদে যারা আমার সিনেমার প্রতিযোগী, তাদের কেউ এমন একটি অভিযোগ করেছেন, নিজের ছবিটি যেন ভালো ব্যবসা করতে পারে।’

তাপসি ঠাকুর আরো বলেন, “আমি অনেক বছর ধরে চলচ্চিত্র নির্মাণ করছি। বিশেষ করে ঈদের সময় আমি বিগ বাজেটের ছবি নিয়ে দর্শকদের সামনে হাজির হই। এখন অনেক প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানই ছবি নির্মাণ করে না, কিন্তু আমি অনেক বড় বাজেট নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি, আমি বিশ্বাস করি দর্শক আমাদের ছবি পছন্দ করেন এবং এবারের ঈদেও তা করবেন। আমার ছবিটির কাজ এখনো শেষ হয়নি। কিছুদিনের মধ্যে আমি ছবিটির কাজ শেষ করে সেন্সর বোর্ডে জমা দেব এবং সাথে প্রয়োজনীয় সব কাগজ জমা দেব। আমি কোনো অনিয়ম করে কখনো ছবি নির্মাণ করি না, করবও না। আমি বাংলাদেশ সরকারের সব নিয়ম মেনে ‘সুপার হিরো’ ছবিটি নির্মাণ করেছি। এখানে কোনো অনিয়ম করা হয়নি।”

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি থেকে জানানো হয়েছে ‘নিপা এন্টারপ্রাইজ’ নামের কোনো প্রতিষ্ঠান এখনো কোনো ছবি নির্মাণ করেনি। এমনকি কোনো ছবির নামও নিবন্ধন করেনি।

‘নিপা এন্টারপ্রাইজ’-এর মালিক কে জানতে চাইলে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক অফিস থেকে সোমেন্দ্র বাবু এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘নিপা এন্টারপ্রাইজ প্রযোজক সেলিম খানের মেয়ের একটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান, গত বছর সমিতিতে টাকা জমাদিয়ে সদস্য পদ নিয়েছেন। কিন্তু এই প্রতিষ্ঠান থেকে কে কী অভিযোগ করেছেন সেটা আমার জানা নেই।’

‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া, নোয়াখাইল্যা মাইয়া’ ছবিটি ছাড়াও সেলিম খান এর আগে ‘আমি নেতা হবো’ ছবিটি প্রযোজনা করেছেন। একই প্রযোজকের’ক্যাপ্টেন খান’ নামের একটি ছবির শুটিং চলছে এখন। এই ছবিটি পরিচালনা করছেন ওয়াজেদ আলী সুমন। এই তিনটি ছবিতেই আছেন শাকিব খান ও শবনম বুবলী।