শরণখোলায় অগ্নিকান্ডে গবাদীপশু সহ মালামাল পুড়ে ছাই

0
483
Exif_JPEG_420

শেখ মোহাম্মদ আলী, শরণখোলা, (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : 

বাগেরহাটের শরণখোলায় দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালকের বসত ঘর পুড়ে একটি গরু, নগদ টাকা, স্বর্ণালংকারসহ মূল্যবান মালামাল পুড়ে কয়েক লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। ১৬ ডিসেম্বর ভোর রাতে উপজেলার ধানসাগর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের রতিয়া রাজাপুর গ্রামের বাসিন্দা  কাইয়ুম
হাওলাদারের বসত বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ ওই পরিবারটি সবকিছু হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন। পাশাপাশি স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।
এলাকাবাসী ও ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ১৫ ডিসেম্বর (শুক্রবার) সন্ধ্যায় গৃহকর্তা  কাইয়ুমের স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন (২৫) বসত ঘরের একটি কক্ষের  মধ্যে ৬টি গবাদি পশুসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র তালাবদ্ধ রেখে তাঁর পিত্রালয়ে যান। শনিবার ভোর  রাতে কে বা কারা তাঁর বসত ঘরটিতে পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে একটি গবাদি পশু সহ ঘরে থাকা নগদ টাকা সহ মূল্যবান মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ভোর রাতে স্থানীয়রা আগুনের কুন্ডলী দেখে শরণখোলা  ফায়ার সার্ভিসে খবর দেন।  ফায়ার সার্ভিস ও এলাকাবাসীর যৌথ প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণ করা গেলেও একটি গরু সহ মূল্যবান মালামাল রক্ষা করা যায়নি। স্থানীয় গ্রাম পুলিশ আঃ জলিল বলেন,
ধারনা করা হচ্ছে পূর্ব শত্রæতার জের ধরে দুর্বৃত্তরা এ অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটিয়েছে।
বসত বাড়ির মালিক কাইয়ুমের স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, তাদের সাথে কিছু লোকের বিরোধ রয়েছে।প্রতিপক্ষরা তাদেরকে জব্দ সহ নিঃস্ব করতে এ ন্যাক্কার জনক ঘটনা ঘটিয়ে তাদেরকে পথে বসিয়েছে।

এ ব্যপারে শরণখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ কবিরুল ইসলাম জানান, অগ্নিকান্ডের খবর তিনি শুনেছেন কেউ কোন অভিযোগ দেয়নি তবে গৃহকর্তা কাইয়ূম একটি হত্যা মামলার আসামী হওয়ায় কেউ বাড়ীতে ছিলোনা।