রাহানে-বিহারির ফিফটির পর ভারত জয়ের পথে

0
292

খুলনাটাইমস স্পোর্টস: জাসপ্রিত বুমরাহর আগুন একটি দিনের জন্য স্তিমিত থাকল। তবে প্রতিপক্ষকে পোড়াতে ভারতের খুব একটা সমস্যা হলো না। প্রথম ইনিংসে বিশাল লিডের পর দ্বিতীয় ইনিংসে লিড আরও বাড়ল অজিঙ্কা রাহানে ও হনুমা বিহারির ফিফটিতে। শেষ ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে আবার শুরুতে হোঁচট খেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ভারত তাই অপেক্ষায় ম্যাচ ও সিরিজ জয়ের। কিংস্টন টেস্টে জয়ের পথ তৈরি করে ফেলেছে ভারত। প্রথম ইনিংসে ২৯৯ রানের লিডের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ফলোঅন না করিয়ে আবার ব্যাটিংয়ে নামে ভারত। টপ অর্ডার সুবিধা করতে না পারলেও রাহানে ও বিহারির দারুণ ব্যাটিংয়ে তারা ইনিংস ঘোষণা করে ৪ উইকেটে ১৬৮ রানে। শেষ ইনিংসে ৪৬৮ রানের লক্ষ্যের পেছনে ছুটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ রোববার তৃতীয় দিন শেষ করেছে ২ উইকেটে ৪৫ রান নিয়ে। টেস্টের তৃতীয় দিনটি দেখেছে তিন ইনিংসের মুখ। বুমরাহর বিধ্বংসী বোলিংয়ে ৭ উইকেটে ৮৭ রান নিয়ে আগের দিনটি শেষ করেছিল ক্যারিবিয়ানরা। বাকি ৩ উইকেটে এ দিন তারা যোগ করতে পারে আর ৩০ রান। আগের ৬ উইকেটের সঙ্গে আর কোনো উইকেট যোগ করতে পারেননি বুমরাহ। একটি করে উইকেট নিয়েছেন ইশান্ত শর্মা, মোহাম্মদ শামি ও রবীন্দ্র জাদেজা। ভারত আবার ব্যাটিংয়ে নেমে পড়ে যায় কেমার রোচের তোপের সামনে। শুরুতেই এই ফাস্ট বোলার ফেরান মায়াঙ্ক আগারওয়ালকে। ৬৩ বল লড়াই করে ৬ রান করা লোকেশ রাহুলও শিকার হন রোচের।পরের বলেই ভারতকে আরেকটি বড় ধাক্কা দেন রোচ। প্রথম বলেই উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন বিরাট কোহলি। টেস্ট ক্যারিয়ারে কোহলির এটি চতুর্থ গোল্ডেন ডাক। খানিকটা লড়াইয়ের পর চেতেশ্বর পুজারা বিদায় নেন ২৭ রান করে। ভারতের রান তখন ৪ উইকেটে ৫৭। সেখান থেকে ভারতকে এগিয়ে নেন রাহানে ও বিহারি। এই সিরিজে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা দুই ব্যাটসম্যান শুধু বিপর্যয়ই এড়াননি, রান তুলেছেন দ্রæত গতিতে। ১১১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটির পথে শেষ সেশনে তারা ৯৫ রান তোলেন ওভারপ্রতি প্রায় ৬ করে। তাতে এ দিনই ইনিংস ঘোষণার সুযোগ পায় ভারত। ৮ চার ও ১ ছক্কায় ৬৪ রানে অপরাজিত থেকে যান রাহানে। প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরির পিঠে বিহারি অপরাজিত থাকেন ৮ চারে ৫৩ রান করে। দিনের শেষ ঘণ্টায় ব্যাটিংয়ে নেমে বুমরাহকে কোনো উইকেট দেয়নি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে উইকেট ধরে রাখতেও পারেনি। ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েটকে ৩ রানে ফিরিয়েছেন ইশান্ত। আরেক ওপেনার জন ক্যাম্পবেল ১৬ রান করে ফিরেছেন শামির বলে। দিনের শেষ সময়টুকু কাটিয়ে দিয়েছেন ড্যারেন ব্রাভো ও শামারাহ ব্রæকস। তবে চতুর্থ দিনে ক্যারিবিয়ানদের পরাজয়কে মনে হচ্ছে কেবল সময়েরই ব্যাপার।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:
ভারত ১ম ইনিংস: ৪১৬
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১ম ইনিংস: ৪৭.১ ওভারে ১১৭ (আগের দিন ৮৭/৭) (হ্যামিল্টন ৫, কর্নওয়াল ১৪, রোচ ১৭, গ্যাব্রিয়েল ০*; ইশান্ত ১০.৫-৩-২৪-১, বুমরাহ ১২.১-৩-২৭-৬, শামি ১৩-৩-৩৪-২, জাদেজা ১১.১-৭-১৯-১)।
ভারত ২য় ইনিংস: ৫৪.৪ ওভারে ১৬৮/৪ (ডি.)(রাহুল ৬, মায়াঙ্ক ৪, পুজারা ২৭, কোহলি ০, রাহানে ৬৪*, বিহারি ৫৩*; রোচ ১০-৩-২৮-৩, হোল্ডার ১১.৪-৫-২০-১, কর্নওয়াল ২৩-৭-৬৮-০, গ্যাব্রিয়েল ৭-৩-১৮-০, চেইস ৩-০-২২-০)।
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ৪৬৮) ১৩ ওভারে ৪৫/২ (ব্র্যাথওয়েট ৩, ক্যাম্পবেল ১৬, ব্রাভো ১৮*, ব্রæকস ৪*; ইশান্ত ৪-১-১৩-১, বুমরাহ ৫-২-১৬-০, শামি ৪-১-১২-১)।