রবীন্দ্র চেতনায় নবীনদের এগিয়ে আসার আহবান

0
365

ফুলতলা প্রতিনিধি : খুলনার পুলিশ কমিশনার মোঃ হুমায়ুন কবির পিপিএম বলেছেন, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জীবনমান ছিল অতি সাধারণ। কিন্তু তার লেখনী ও চিন্তা ভাবনায় ছিল উচ্চমানের। তিনি ছিলেন একজন অসাম্প্রদায়িক কবি। তিনি হিন্দু সম্প্রদায়ের উচ্চ পরিবারের সন্তান হয়ে এবং বিদেশে লেখাপড়া করা সত্ত্বেও অসাম্প্রদায়িক চেতনার মাধ্যমে বাঙালী জাতিকে বিশ্বের দরবারে পৌঁছে দিয়েছেন। সাহিত্যের এমন কোন শাখা নেই যেখানে তিনি বিচরণ করেন নি। তিনি ছিলেন একাধারে কবি, সাহিত্যিক, প্রাবন্ধিক, ছোট গল্পকার ও দার্শনিক। তিনি দেশ ও জাতির উন্নয়নের জন্য নবীনদের রবীন্দ্র ভাবনায় উদ্বুদ্ধ করে এগিয়ে নেওয়ার আহবান জানান। এছাড়াও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ও রবীন্দ্র চেতনায় নবীনদের দেশ গড়ার কাজে নিয়োজিত হতে হবে বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন। গতকাল বিকেলে ফুলতলার দক্ষিণদিহি রবীন্দ্র কমপ্লেক্সে ৩ দিনব্যাপি লোকমেলা অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় দিনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।
খুলনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ নূর-ই-আলম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ। পরে বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠানে “সাধারণ মানুষের রবীন্দ্রনাথ” বিষয়ের উপর আলোচনা করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ স্টাডিজ বিভাগের পরিচালক প্রফেসর ড. স্বরোচিষ সরকার। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন এ্যাড. মিনা মিজানুর রহমান, অনুপম মিত্র ও ফারহানা ইয়াসমিন। আলোচনা অনুষ্ঠানের শেষে রবীন্দ্র সঙ্গীতসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ফুলতলা থেকে মনীষা মন্ডল, মেজবাহ উদ্দিন মাহীম, শাহজাদী সিরাজ বুশরা রবীন্দ্র সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশন করেন। এছাড়াও জেলা শিল্পকলা একাডেমি ও অন্যান্য শিল্পীবৃন্দ সঙ্গীত পরিবেশন করেন। প্রতিদিন দক্ষিণদিহি রবীন্দ্র কমপ্লেক্সে লোকমেলা অনুষ্ঠানে শত শত রবীন্দ্র ভক্তদের আগমণ ঘটে। গতকাল দ্বিতীয় দিনেও তার কমতি ছিল না।