যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীকে মারপিট করে আটকে রাখার অভিযোগে মামলা

0
445

ফুলবাড়ীগেট (খুলনা) প্রতিনিধি, খুলনাটাইমস:

প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়াই গোপনে দ্বিতীয় বিবাহ করার প্রতবাদ করায় স্ত্রীকে মারপিট করে ঘরের মধ্যে আটকে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্ত্রী বাপের বাড়ী থেকে যৌতুকের টাকা এনে দেওয়ার কথা বলে পালিয়ে এসে গুরুতর আহত অবস্থায় বেগম খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর চিকিৎসা শেষে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।
অভিযোগে জানাগেছে, ২০০৩ সালে কুষ্ঠিয়া জেলার কুমারখালী থানার রামচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত গোলাম কুদ্দুসের পুত্র মোঃ মনিরুল ইসলামের সাথে শাহানাজ বেগমের বিবাহ হয়। বিবাহের সময় মনিরুলকে মটরসাইকেল সহ ঘরের যাবতিয় মালামল দেওয়া হয়। বিবাহের কিছু দিন পর প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়াই গোপনে দ্বিতীয় বিবাহ করে। দ্বিতীয় বিয়ের খবর জনাজানি হলে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে বিষয়টি নিয়ে মনোমালিন্য হয়। এক পর্যায়ে প্রথম স্ত্রী শাহনাজকে মারপিট করে ৬লক্ষ টাকা দাবী করে ঘরের মধ্যে আটকে রাখে। পরবর্তিতে শাহনাজ যৌতুকের টাকা এনে দেওয়ার কথা বলে গত ২২ জানুয়ারী খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়। এ ব্যাপারে শাহনাজ বেগম বাদী হয়ে স্বামী মনিরুলের বিরুদ্ধে শৈলকুপা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ১৯ তাং ২৫/১/১৮।#