মোড়েলগঞ্জে স্বাস্থ্য পরীক্ষা নিশ্চিত করে ২ শতাধিক কৃষি শ্রমিক গেলেন ধান কাটতে

0
295

এম.পলাশ শরীফ, মোড়েলগঞ্জ
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ধান কর্তন ও মাড়াইয়ের জন্য বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার পঞ্চকরণ ইউনিয়নের ২শতাধিক কৃষি শ্রমিককে স্বাস্থ্য পরীক্ষা নিশ্চিত করে ধান কাটতে পাঠালেন পুলিশ প্রশাসন।
রোববার দুপুরে ইউনিয়নের পঞ্চকরণ, খারইখালী ও দেবরাজ গ্রাম থেকে এ শ্রমিকরা নৌ রুটে বরিশালের বানরিপাড়া, মিরেরহাট, গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়াসহ বিভিন্ন উপজেলার হাওড় ও বিল এলাকায় ধান কাটতে যান তারা । এ নিয়ে তিন দফায় ৪ শতাধিক শ্রমিক গেলেন ধান কাটতে।
প্রাণঘাতি করানোর ঝুঁকি এড়াতে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নদী পথে এদেরকে পঞ্চকরণের নতুন বাজার লঞ্চঘাট থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ট্রলারযোগে বিভিন্নস্থানে পাঠানো হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন থানা অফিসার ইন চার্জ কেএম আজিজুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক মজুমদার, প্রেসক্লাবের সহসভাপতি গনেশ পাল, অর্থ ও দপ্তর সম্পাদক এম.পলাশ শরীফ, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা দিপংকর সমদ্দার, ইউপি সদস্য মো. দেলোয়ার হোসেন, আব্দুল জলিল খান, মিল্টন শেখ মিলু, যুবলীগ নেতা বদিউজ্জামান মজুমদা ও রাজ্জাক খলিফা।
এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাম মজুমদার জানান, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় হাওর, বিল এলাকায় ফসল কর্তনে শ্রমিক সংকট নিরাশনের জন্য এ ইউনিয়ন থেকে প্রথম পর্যায়ে ২ শতাধিক শ্রমিক পাঠানো হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আরো ৭শ’ শ্রমিক পাঠানো হবে।
এ সর্ম্পকে থানা অফিসার ইন-চার্জ কেএম আজিজুল ইসলাম বলেন, বাগেরহাটে এখনো করেনা মুক্ত। তারপরও এসব কৃষি শ্রমিকের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হয়েছে। এরা আবার ফিরে আসলে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় জেলা পুলিশ সুপারের উদ্যোগে এ উপজেলা থেকে গত তিন দিনে ৪শ’ শ্রমিককে পাঠানো হয়েছে। এ উপজেলা থেকে ২ হাজার শ্রমিক পাঠানো হবে।