মেয়েকে এপিএস নিয়োগ দিলেন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

0
477

টাইমস ডেস্ক :
মেয়ে বেগম কানিজ ফাতেমা চৈতীকে নিজের সহকারী একান্ত সচিব হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী।

আজ মঙ্গলবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব আলিয়া মেহের স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ‘কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী এমপির অভিপ্রায় অনুসারে বেগম কানিজ ফাতেমা (চৈতি), পিতা কাজী কেরামত আলী, মাতা রেবেকা সুলতানা-কে প্রতিমন্ত্রীর একান্ত সচিব হিসেবে নিয়োগ প্রদান করা হল।’

প্রজ্ঞাপনে কানিজ ফাতেমার বর্তমান ঠিকানা উল্লেখ করা হয় নিকুঞ্জ-১, ঢাকা। আর স্থানীয় ঠিকানায় বলা হয়েছে- রাজবাড়ি সদরের সজ্জনকান্দা।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, প্রতিমন্ত্রী যত দিন এ পদ অলংকৃত করবেন অথবা বেগম কানিজ ফাতেমাকে উক্ত পদে বহাল রাখার অভিপ্রায় পোষণ করবেন তত দিন এ নিয়োগ আদেশ কার্যকর থাকবে।

গত ২ জানুয়ারি শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন কাজী কেরামত আলী।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কাজী কেরামত আলী ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘হ্যাঁ সে আমার মেয়ে। সে আমাকে সহযোগিতা করবে। এ কারণে তাকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।’

সে কী রাজনীতি করে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘না তেমনটা না। তবে রাজনীতির মাঠে আছে।’

কানিজ ফাতেমা চৈতী জেট এয়ারওয়েজে সেলস এন্ড মার্কেটিং কো-অর্ডিনেটর পদে চাকরি করতেন। তিনি ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি থেকে এলএলএম ডিগ্রি অর্জনের পূর্বে লন্ডন ইউনিভার্সিটির এক্সটারনাল প্রোগ্রামের আওতায় ভূঁইয়া একাডেমি থেকে এলএলবি অনার্স ডিগ্রি, ধানমন্ডি টিউটোরিয়াল স্কুল থেকে ও লেভেল এবং এ লেভেল পাশ করেন।

তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, গোয়ালন্দ মহকুমা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সাবেক গণপরিষদ সদস্য প্রয়াত কাজী হেদায়েত হোসেনের নাতনী। তার স্বামী মোঃ আসিফ ইকবাল পেশায় মেরিন ইঞ্জিনিয়ার এবং শ্বশুর হাবিবুর রহমান বগুড়া-৫ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য।