মেসির বিপক্ষে খেলতে অপছন্দ করি: রাকিটিচ

0
233
বার্সেলোনা, লিওনেল মেসি, ইভান রাকিটিচ, আরটিভি অনলাইন, Ivan Rakitic, Barcelona, Lionel Messi, rtv online

স্পোর্টস ডেস্ক:
স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনার হয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে একাধিক শিরোপা জিতেছেন লিওনেল মেসি এবং ইভান রাকিটিচ। দুই জনের বন্ধুত্বের সম্পর্কে অবগত নন, এমন বার্সা সমর্থক খুঁজে পাওয়া মুশকিল। কিন্তু ঘটনাক্রমে বিশ্বকাপে এই দুই বন্ধুই আলাদা দেশের জার্সিতে মুখোমুখি হবেন একে অপরের বিপক্ষে।

বিশ্বকাপের একুশতম আসরে গ্রুপ ‘ডি’-তে আর্জেন্টিনার সঙ্গেই রয়েছে রাকিটিচের দল ক্রোয়েশিয়া। মূল আসরে কি হবে তা না ভেবে সাক্ষাতকারে মেসি বন্দনায় মেতে ওঠেন এই মিডফিল্ডার।

৩০ বছর বয়সী এই তারকা বলেন, মেসি নিঃসন্দেহে একজন বড় মানের ফুটবলার এবং তার উপস্থিতির কারণেই আসন্ন বিশ্বকাপে অন্যতম ফেভারিট আর্জেন্টিনা। কারণ বিশ্বের সেরা ফুটবলার যেই দলে থাকে, সেই দলকে সেরা না বেছে উপায় নেই। আমি ওকে এবং আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপের জন্য শুভকামনা জানাই।

বার্সার হয়ে ২০১৪ সাল থেকে এই পর্যন্ত ১৩৫ ম্যাচে গোল করেছেন ২১টি। জাতীয় দলের জার্সিতে ৯১ ম্যাচে ১৪টি গোল করেছেন রাকিটিচ।

সাক্ষাতকারে তার সামনে প্রশ্ন রাখা হয় আসলে মেসিকে আটকানো কতটা কঠিন?

উত্তরে রাকিটিচ বলেন, আমার এটা মেনে নেয়া উচিৎ, আসলে আমি মেসির বিপক্ষে খেলতি অপছন্দ করি। গেলো চার বছরে তার সঙ্গে খেলেছি। কাছ থেকে তার অসাধারণ দক্ষতা দেখতে পেয়ে আমি মুগ্ধ। যা বিশ্বের অন্যকারও হতে পারে না। এক সঙ্গে মাঠে নেমে তার নৈপুণ্য দেখে অনেকবার আমি অবাক হয়েছি।

মেসির দুরন্ত পারফরম্যান্সের কারণেই এই বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জন করেছে আর্জেন্টিনা। এবং বিশ্বের অধিকাংশ ফুটবল বিশেষজ্ঞই মনে করেন, একা মেসিই আর্জেন্টিনা এগিয়ে নিয়ে চলেছেন। বিশেষজ্ঞদের এই ধারণাও মেনে নেন রাকিটিচ।

কাতালান ক্লাবটির প্রাণভোমরাকে নিয়ে রাকিটিচ আরও বলেন, নুক্যাম্পে আমরা সবাই জানি দলের জন্য সে কতো বড় ভূমিকা রাখতে পারে। যদিও মস্কোতে দুজনের লক্ষ্য এক হলেও দল ভিন্ন। সেখানে আমি নিজের সেরাটা দেবার চেষ্টা করবো যাতে মেসি সেরাটা না দিতে পারেন।

মেসির ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে একাধিক ম্যাচ জেতানোর কথা মনে করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন, ফুটবল না খেলে মেসি যদি টেনিস খেলতেন তা হলে ৫০টি গ্র্যান্ডস্ল্যাম জিততে পারতেন। কিন্তু ফুটবল কখনই একা খেলা সম্ভব নয়, এটা ব্যক্তিগত খেলা নয়, দলগত খেলা।

মেসির ওপর ভর করে ২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছিল আর্জেন্টিনা। ২০১৫ এবং ২০১৬ কোপা আমেরিকায় মেসিই ফাইনাল পর্যন্ত নিয়ে গিয়েছিল দুই বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন দলটিকে। কিন্তু এই তিনটি ক্ষেত্রেই ফাইনাল জিততে ব্যর্থ হয় আলবিসেলেস্তেরা।

এবারের বিশ্বকাপে ২১ জুন গ্রুপের ম্যাচে মেসির আর্জেন্টিনার মুখোমুখি হবে রাকিটিচের দল।