মিডিয়া ফেলোশিপ প্রাপ্ত খুলনার দুই  সাংবাদিকসহ তিনজনকে সংবর্ধনা

0
546
বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ছিন্নমূল মানব কল্যাণ সোসাইটির উদ্যোগে সোমবার বিকেলে সোনাডাঙ্গা আবাসিক এলাকাস্থ এনজিও ফোরাম কনফারেন্স রুমে বিভিন্ন শ্রেণীর প্রতিনিধিদের নিয়ে এ্যাডভোকেসী  সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় মিডিয়া ফেলোশিপ প্রাপ্ত খুলনার দু’ সাংবাদিক দৈনিক প্রবাহ পত্রিকার সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার খলিলুর রহমান সুমন ও দৈনিক কালের কন্ঠের স্টাফ রিপোর্টার কৌশিক দে বাপ্পীসহ তিনজনকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। অন্যজন হলেন খুলনা জজ কোর্টের আইনজীবী গৌতম কুমার সরকার। এ তিনজন যে যার অবস্থান থেকে সমাজে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠার অধিকার সুরক্ষায় অগ্রনী ভূমিকা পালন করায় বন্ধু সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটির পক্ষ থেকে ফেলোশিপ দেয়া হয়।‘আপনার সহযোগিতাই আমাদের পাথেয়’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে বন্ধু সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটির সহযোগিতায় আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক কাজী মুহাম্মদ ইব্রাহীম, বিশেষ অতিথি ছিলেন দৈনিক জন্মভূমি পত্রিকার চীফ রিপোর্টার সোহরাব হোসেন ও ছিন্নমূল মানবকল্যাণ সোসাইটির উপদেষ্টা এড. পপি ব্যানার্জী। ছিন্নমূল মানবকল্যাণ সোসাইটির  উপদেষ্টা আবুল ফয়সাল মোঃ সায়েমের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেনের পরিচালনায় সভায় বক্তৃতা করেন এড. নজরুল ইসলাম, সোসাইটির সভাপতি শেখ নুর মোহাম্মদ অর্পা, প্রশাসনিক কর্মকর্তা হোসনে আরা বেগম, তৃতীয় লিঙ্গের সদস্য পাখি,সংবর্ধিত অতিথিসহ অন্যান্যরা। সভায় বক্তারা বলেন, সমাজের অবহেলিত জনগোষ্ঠী হিজড়া সম্প্রদায়ের অধিকার সুরক্ষায় সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। তাদের ব্যাপারে দৃষ্টিভঙ্গি বদলাতে হবে এ সমাজের মানুষদের। কারণ এ তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীর সদস্যরা সমাজ পরিবর্তন করার আন্দোলনে অনেকে কাজ করছে। কেউ পরিবারের অভিভাবক, কেউ মানবিকতায় আবার কেই দানশীলে সমাজে অবদান রাখছে। এদের সামাজিক অধিকার ফিরিয়ে দিতে সকলকে একযোগে কাজ করার আহবান জানানো হয়। সমাজের অবহেলিত জনগোষ্ঠী হিজড়া সম্প্রদায়ের অধিকার সুরক্ষায় ২০০১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ছিন্নমূল মানব কল্যাণ সোসাইটি। যাদের আন্দোলন এখনও চলছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি#