মালয়েশিয়ায় অভিবাসীদের মধ্যে ক্রাইমে জিরো বাংলাদেশ

0
656

আরিফুল ইসলাম:
মালয়েশিয়ায় ১৫টি দেশের অভিবাসীদের মধ্যে ক্রাইমের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান শূণ্যের কোটায় বলে জানাগেছে। ৪৬তম মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ প্রেসক্লাব অব মালয়েশিয়া কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এ কথা জানিয়েছেন, মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রম বিষয়ক ফার্স্ট সেক্রেটারি মো: হেদায়েতুল ইসলাম মণ্ডল ৷

তিনি আরও জানান, “এ দেশে বাংলাদেশি কর্মীরা শ্রম দিয়ে দেশের মুখ উজ্জল করছে” ৷ তিনি অত্যান্ত আনন্দঘন পরিবেশে বলেন: আমি যখন কোন নিয়োগকর্তার সাথে কথা বলি, তাঁরা আমাদের কর্মীদের প্রশংসা করেন। তারা এও বলেন যে,’ বাংলাদেশিরা সৎ ও পরিশ্রমি। তারা কাজ করতে পছন্দ করে এবং এলকোহল (মদ) পান করে না’ ৷ তিনি অবৈধ প্রবাসী বাংলাদেশীদের আহবান জানিয়ে বলেন; আমি সবাইকে অনুরোধ করবো আপনারা সু-ব্যবহার ও সততার সাথে কাজ করে প্রবাসে দেশের ভাবমুর্তি অক্ষুণ্য রাখবেন এবং যারা অবৈধ আছেন তারা আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে নিবন্ধন সম্পন্ন করবেন” ৷

দেশের জাতীয় জীবনে নানা সংকট, সমস্যা ও প্রতিকূলতা থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশ এগিয়ে চলছে দুর্বারগতিতে। এসব গতির পিছনে আপনাদের অবদান অবিস্মরণীয়।

ত্রিশ লাখ শহীদের আত্মত্যাগ এবং অসংখ্য মা বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে অর্জিত মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরের হোটেলে রিজেন্সিতে বাংলাদেশ প্রেসক্লাব অব মালয়েশিয়া কর্তৃক এ আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানটি প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি আহমাদুল কবিরের কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হয়। এবং সাবেকুন নাহার ও জহিরুল ইসলামের যৌথ উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রেসক্লাবের সভাপতি মনির বিন আমজাদ ৷

প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ‘তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক’ আরিফুল ইসলাম। তিনি তার বক্তব্যে উল্লেখ করে বলেন; “আমাদের মুক্তিযুদ্ধে যদি গণমাধ্যমের অবদান মুক্তির পক্ষে না থাকতো তবে বাংলাদেশের এ বিজয় হয়তো নয় মাসেও অর্জিত হত না”

তাছাড়া আরও বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য ওয়াহিদ সোহান ও গোলাম রব্বানী রাজা ৷ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত কমিউনিটির
নেত্রীবৃন্দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, শহিদ উল্লাহ্, মুকবুল হুসেন মুকুল, প্রফেসার আবুল বাশার, রাশেদ বাদল ও কামরুজ্জামান কামাল ৷

এছাড়া উক্ত অনুষ্ঠানে সর্বস্তরের বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশিরা উপস্থিত ছিলেন ৷ বিজয়ের আনন্দকে উপভোগ্য করতে মালেশিয়াস্থ বাংলাদেশী
সংস্কৃতিক সংগঠন মামা শিল্পীগোষ্ঠীর পরিবেশনায় ও শাহ আলম হাওলাদারের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত হয় এক মনোমুগ্ধকর মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ##