মানুষের সুখ-দুঃখে সবসময় পাশে ছিলাম, এজন্য আমাকে ভোট দিবে : নজরুল ইসলাম মঞ্জু

0
931

এম জে ফরাজী, খুলনাটাইমস:
খুলনা শহরের মানুষের সুখ-দুঃখে সবসময় পাশে ছিলাম এবং নগরবাসী সবসময় দেখেছেন এজন্যই জনগন আমাকে ভোট দিয়ে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র নির্বাচিত করবেন বলে মন্তব্য করেছেন নগর বিএনপি সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু। আসন্ন কেসিসি নির্বাচনে বিএনপির মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার পর মঙ্গলবার এ প্রতিবেদকের সাথে আলাপচারিতায় এসব কথা বলেন।
সাবেক এমপি মঞ্জু বলেন, আমি নির্বাচিত হলে বিদ্যমান ও দৃশ্যমান সমস্যা নিয়ে কাজ করবো। সরকারি অর্থায়ন ছাড়া মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন অসম্ভব। আর তাই মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করার পর তা করতে না পারা কেউ ভালোভাবে নেয় না। নাগরিক তাদের দেওয়া অর্থের নিশ্চিত ব্যবহার দেখতে চান। তাই নগরবাসীর অর্থে বিদ্যমান সমস্যা সমাধান জরুরি।
তিনি আরও বলেন, খুলনা বাংলাদেশের একটি বৃহত্তর শহর এবং একটি শিল্প বন্দর। এ শহরের মানুষ নাগরিক সুবিধা চান। রাস্তাঘাট উন্নয়নের পাশাপাশি বসতির উন্নয়ন, ড্রেনেজ ও জলাবদ্ধতার উন্নয়ন চান নগরবাসী। আর সেটির জন্য তারা হোল্ডিং ট্যাক্স এবং বিভিন্ন ধরনের উৎস থেকে অর্থ দিয়ে থাকেন। এই অর্থ সঠিকভাবে ব্যবহার ও নাগরিক সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত হলো কিনা সেটি দেখতে চান নগরবাসী। আমি মনে করি এ কাজটি মুখ্য। আকাশকুসুম কোনও কিছু না দেখিয়ে খুব বেশি উচ্চাশা প্রকাশ না করে নগরের বিদ্যমান সমস্যা নিয়েই কাজ করতে হবে এবং সে ব্যাপারেই আমার আগ্রহ। আমি আমার নির্বাচনি প্রচারণায় এগুলোকেই সামনে নিয়ে আসবো।
নগর বিএনপি সভাপতি বলেন, যানজটমুক্ত শহর দরকার, নিরাপত্তা দরকার, সড়ক ব্যবস্থা যাতে ভালো থাকে, মানুষের যেন কষ্ট না হয়, সে লক্ষ্যেই কাজ করে যাবো। এছাড়া রাস্তাঘাটের আবর্জনা পরিষ্কার করা মানুষের কাছে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা আবর্জনা সরিয়ে রাস্তাঘাট পরিষ্কার করা, রাস্তাঘাটে বাতি আছে কিনা তা, ভবিষ্যৎ প্রজন্ম শিশুদের জন্য বিনোদনের ব্যবস্থা এসব বিষয়কে আমি সামনে নিয়ে আসবো। এসব বিষয় নিয়েই ভাবছি। সবশেষ তিনি বলেন, এ শহরের মানুষের সুখ-দুঃখে সবসময় পাশে ছিলাম এবং নগরবাসী সবসময় দেখেছেন আমি তাদের নিয়েই ভাবি। বিভিন্ন সঙ্কটে মানুষের সেবায় এগিয়ে গিয়েছি। আর সে কারণেই মানুষ আমাকে নির্বাচিত করবে।
প্রসঙ্গত, খুলনা বিএনপিতে নজরুল ইসলাম মঞ্জু সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা হিসেবে পরিচিত। রাজনৈতিক জীবনে তিনি কখনও আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেকের মুখোমুখি হননি। ২০০৯ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তার দলের ভরাডুবি হলেও তিনি খুলনা-২ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালের নির্বাচন বিএনপি বয়কট করলে তিনি নির্বাচনে অংশ নিতে পারেননি। মেয়র পদে আগ্রহ না থাকার পরও তিনি দলীয় সিদ্ধান্তে এবছর নির্বাচন করছেন।