মধুপুরে রাবার শ্রমিকদের ধর্মঘটে কারখানায় অচলাবস্থা

0
832

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের মধুপুর জোনের ৫ রাবার বাগানের পিচমিল টেপিং শ্রমিকদের ৪ দফা দাবীতে টানা ১৮ দিনের ধর্মঘটে অচলাবস্থা বিরাজ করছে রাবার কারখানায়। এ ধর্মঘটের কারণে মধুপুর জোনের ৫ রাবার বাগানে কষ আহরণ বন্ধ থাকায় কারখানায় উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে। এতে করে সরকার কোটি কোটি টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে।
দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট অব্যাহত রাখার ঘোষনা দিয়ে বুধবার (৩১ অক্টোবর) মধুপুর পীরগাছা রাবার শ্রমিক ইউনিয়নের ক্যাম্পাসে সমবেত হয়ে শ্রমিকরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। শ্রমিকদের দাবী নিয়ে জাতীয় দৈনিক আমার সংবাদ, জাতীয় দৈনিক ভোরের ডাক পত্রিকা সহ বিভিন্ন অনলাই পত্রিকায় বার বার সংবাদ প্রকাশের পরও উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ কোন পদক্ষেপ গ্রহন করছে না।
জানা যায়, বাংলাদেশ বন শিল্প উন্নয়ন কর্পোরেশন (বশিউক) এর আওতাধীন মধুপুর-শেরপুর জোনের পীরগাছা, চাঁদপুর, কমলাপুর, সন্তোষপুর ও কর্নজোড়া এ ৫ রাবার বাগানের পিচমিল টেপিং শ্রমিকরা গত ১৩ অক্টোবর থেকে টেপিং বন্ধ রেখে ধর্মঘট অব্যাহত রেখেছে। টেপিং কাজে এবং কষ প্রক্রিয়াজাতকরণ কারখানায় কর্মরত শ্রমিকদের স্থায়ী শ্রমিক হিসেবে নিয়োগ, অস্থায়ী ভাবে পিচমিল নিয়ম বাতিল করে মাসিক মাষ্টার রোল ভিত্তিক নিয়মিত শ্রমিকের সমপরিমাণ মজুরী প্রদান, কারখানায় শ্রমিকদের মাষ্টার রোলে মাসিক ১৫ হাজার টাকা মজুরী প্রদান ও বাগানের যাতায়াতের রাস্তা মেরামতপূর্বক ইট বিছানোসহ ৪ দফা দাবীতে পাঁচ রাবার বাগানের প্রায় ১৬‘শ শ্রমিক টানা ১৮ দিন ধরে ধর্মঘট অব্যাহত রেখেছে।
বুধবার সকাল থেকে পিচমিল টেপিং শ্রমিকরা পীরগাছা রাবার বাগানের শ্রমিক ইউনিয়নের ক্যাম্পাসে সমবেত হয়ে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে। মানববন্ধন ও সমাবেশে ৪ দফা দাবীর সপক্ষে বক্তব্য রাখেন পীরগাছা পিচমিল টেপিং শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সাইফুল ইসলাম শানু, সহ-সভাপতি মোখলেছুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক আ. আলিম, শ্রমিক আলমাছ উদ্দিন, আনোয়ার হোসেন, আক্তার হোসেন মুন্সি, নারী শ্রমিক হনুফা বেগম, হামিদা বেগম, লায়লা বেগম, হাসনা,দিলরুবা, কোহিনুর,নীলিমা সাংমা প্রমূখ।
এ বিষয়ে মধুপুর রাবার জোনের জেনারেল ম্যানেজার (চলতি দায়িত্ব) ওয়ালিউর রহমান জানান, শ্রমিকদের দাবী-দাওয়া মানার এখতিয়ার আমার নেই। তবে আমি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে তাদের দাবী-দাওয়াগুলো জানিয়েছি।