মংলায় বাড়ীর সিমানার গাছ কেটে জমি দখলের চেষ্টা

0
363

মংলা প্রতিনিধি
মংলায় বাড়ীর সীমানা জটিলতা নিয়ে গাছ কেটে জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। মংলা পৌর শহর মোরশেদ সড়কের মল্লিকি টেইলার্সের মালিক ছালাম মল্লিক এ গাছগুলো কেটে ফেলেছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। শুক্রবার রাতের অন্ধকারে যে কোন সময় স্বামী হারা এক অসহায় পরিবারের এ গাছগুলো কেটে জমি দখলে চেষ্টা করা হয়। এব্যাপারে থানায় একটি অভিযোগ দেয়া হয়েছে।
থানার অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, পৌর শহরের ৩নং ওয়ার্ডে বসবাসকারী রুস্তুম ফোরম্যান গত ২০০৭ সালের ১২ ফেব্রয়ারী মৃতু বরন করলে তার পার্শবর্তী ছালাম মল্লিক বিভিন্ন সময় তাদের জমিটুকু জবর দখল করার পায়তারা করে আসছে। মৃতু রুস্তুম ফোরম্যানের ২টি কন্যা সন্তান ছাড়া অন্য কোন ছেলে সন্তান না থাকার সুবাধে জবর দখলে চেষ্টা চালায় তিনি। গত শুক্রবার রাতে বৃদ্ধা মহিলা ঘরে না থাকায় কাউকে কিছু না জানিয়ে অসহায় স্বামী হারা এ পরিবারটির সীমানার মধ্য থেকে প্রায় ৫০ হাজার টাকা মুল্যের ৫টি মুল্যবান গাছ কেটে ফেলে। এছাড়াও পুর্বের সিমানা ছাড়িয়ে ওই মহিলার জমির মধ্যে গিয়ে বেড়াবাধ দেয় বলে অভিযোগে উল্লেখ করে। বৃদ্ধা ওই মহিলা এ গাছ কাটা নিয়ে প্রতিবাদ করলে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে। এছাড়ও ওই স্বামী হারা মহিলার জমির মধ্যে তার জমি রয়েছে বলে হুমকি দেয় ছালাম মল্লিক। গতকাল তার জামাতা মোঃ মিজানুর রহমান বাদী হয়ে মংলা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। এ বিষয় ছামাম মল্লিক জানায়,তার সিমানায় বেশ কয়েকটি গাছ বড় হয়েছে এবং ঘরের মধ্যে গাছের ডাল-পালা ডুকে যাচ্ছে। গাছের পোকা ঘরে ঢোকার কারনে ভাড়াটিয়ারা থাকতে চাচ্ছেনা তাই সামান্য ছোট কয়েকটি গাছ কাটা হয়েছে। এব্যাপারে মংলা থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক বিশ্বজিৎ কুমার বলেন, গতকাল সকালে অভিযোগ পেয়ে তদন্তের জন্য পৌর শহরের মোরশেদ সড়কের মল্লিকি টেইলার্সের মালিক ছালাম মল্লিকের বাড়ী যাওয়া হয়েছে। তবে বৃদ্ধা ওই মহিলার গাছ কাটার সত্যতাও পাওয়া গেছে। কাগজপত্রসহ তাদের উভয়কে ডাকা হয়েছে, যাচাই করে অন্যায় পেলে ব্যাবস্থা নেয়া হবে।