ভারতে সুপার ইমার্জেন্সি চলছে : মমতা

0
327

খুলনাটাইমস বিদেশ :ভারতে সুপার ইমার্জেন্সি চলছে বলে মন্তব্য করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমন পরিস্থিতিতে জনগণকে তাদের সাংবিধানিক অধিকার ও স্বাধীনতা রক্ষার তাগিদ দিয়েছেন তিনি। গতকাল রোববার টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে এমন তাগিদ দেন এই রাজনীতিক।টুইটে মমতা বলেন, “আজ আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবসে আসুন আমরা সকলে আমাদের দেশের সাংবিধানিক পরিকাঠামোকে অক্ষুণ্য রাখার অঙ্গীকার নিই। এই ‘সুপার এমারজেন্সি’-র জমানায় মানুষের সাংবিধানিক অধিকার ও স্বাধীনতা রক্ষার জন্য যা যা করতে হবে আমরা তা অবশ্যই করব।”এদিকে ভারতের নাগরিক তালিকা ইস্যুতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কঠোর সমালোচনা করেছেন বিজেপি বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং। গত শনিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে উগ্র হিন্দুত্ববাদী এ বিজেপি নেতা হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, মমতার বিরোধিতা সত্তে¡ও আসামের মতো পশ্চিমবঙ্গেও নাগরিক তালিকা করা হবে। তালিকায় যারা অবৈধ হবে চিহ্নিত হবে, তাদের হাতে দুই প্যাকেট করে খাবার ধরিয়ে দিয়ে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে।৩১ আগস্ট শনিবার স্থানীয় সময় সকাল দশটায় অনলাইন ও এনআরসি সেবাকেন্দ্রে প্রকাশিত হয় আসামের চ‚ড়ান্ত নাগরিক তালিকা (এনআরসি)। এ থেকে বাদ পড়েছেন রাজ্যের প্রায় ১৯ লাখ ৬ হাজার ৬৫৭ জন মানুষ। বাদ পড়া ব্যক্তিদের ভারতের পক্ষ থেকে অবৈধ বাংলাদেশি দাবি করা হলেও ঢাকা বলছে, ভারতে বাংলাদেশের কোনও অবৈধ নাগরিক নেই। আসামের মতো পশ্চিমবঙ্গেও এনআরসি করার হুমকি দেওয়া হয়েছে বিজেপির পক্ষ থেকে। হুমকির প্রতিবাদে রাজপথে নেমেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।এনআরসি ইস্যুতে মমতার পদক্ষেপের সমালোচনা করতে গিয়ে বিজেপি বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং অভিযোগ করেন, পশ্চিমবঙ্গে বাংলাদেশিদের স্থান করে দিতে মমতা এনআরসি’র বিরোধিতা করছেন। শনিবার বিজেপির এই নেতা হুঁশিয়ার করেছেন, ‘পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি প্রয়োগ করা হবে তা নিশ্চিত। চ‚ড়ান্ত তালিকার পর পশ্চিমবঙ্গে যারা ভারতের নাগরিক হিসাবে যোগ্যতা অর্জন করবেন না তাদের সম্মানজনকভাবে ভারত ছাড়তে হবে। মমতা শত বাঁধা দিলেও পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি কার্যকর করা হবে এবং সব বাংলাদেশির হাতে দুটি খাবাবের প্যাকেট ধরিয়ে তাদের দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।’ সূত্র: দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া, টুইটার।