ব্রেস্ট ক্যান্সার ডেকে আনে এলসিডি থেকে নির্গত নীল আলো!

0
506

অনলাইন ডেক্স:
সম্প্রতি এক গবেষণায় জানা গিয়েছে বেশি সময় ধরে খঊউ স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থাকলে ক্যান্সার হওয়ার সম্ভবনা বেড়ে যায়। খঊউ স্ক্রিন থেকে নির্গত হওয়া নীল আলোর সাথে ক্যান্সারের যোগ খুঁজে পেয়েছেন গবেষকরা। ইউনিভার্সিটি অফ এক্সটেরিয়ার ইন ব্রিটেন আর বার্সেলোনা ইন্সটিটিউট অফ গ্লোবাল হেলথ -এর গবেষকরা এই বিষয়ে এক গবেষনা করেন।

ঘরের বাইরে স্ট্রিট লাইট ও যে কোন আর্টিফিশিয়াল লাইটের সংখ্যা বেড়েছে মাদ্রিদ ও বার্সেলোনায়। ইন্টারন্যাশানাল স্পেস ষ্টেশান থেকে তোলা সাম্প্রতিক ছবিতে প্রমান মিলেছে এই তথ্যের।

১১ টি স্প্যানিশ এলাকার ২০ থেকে ৮৫ বছর বয়সী ৪০০০ মানুষের উপর এক গবেষণা চালানো হয়। যারা এই ব্লু লাইটে বেশি ব্যাবহার করেন তাদের ব্রেস্ট বা প্রস্টেট ক্যান্সার হওয়ার চান্স প্রায় দেড় থেকে দুই গুন বেড়ে যায়। এছাড়াও মানুষের দেহে হরমোন লেভেলের উপর প্রভাব ফেলে খঊউ স্ক্রিন থেকে নির্গত হওয়া এই ব্লু লাইট বলে জানানো হয়েছে এই গবেষনায়।

এর ফলে প্রশ্ন উঠেছে রাতের শহরে সর্বত্র খঊউ স্ক্রিন মানুষের বিপদ ডেকে আনছে কি না। গবেষকরা জানিয়েছেন যদিও তারা মোবাইলের স্ক্রিন নিয়ে কোন গবেষণা চালান নি। কিন্তু এই একই স্ক্রিন ব্যবহার করা হয় মোবাইল ডিভাইস ও ল্যাপটপেও।

তারা আরও জানিয়েছেন এই বিষয়ে আরও তথ্য পেতে আরও গবেষনা প্রয়োজন। এছাড়াও প্রয়োজন এই ব্লু লাইটের ফলে তরুন প্রজন্মের মধ্যে কি ধরনের পরিবর্তন আসছে তা জানা। আর্টিফিশিয়াল লোর বিভিন্ন তরঙ্গদৈর্ঘ্য বিশেষ করে নীল তরঙ্গের আলো মেলাটোনিন তৈরী ও সিক্রেশান কমিয়ে দেয়।

আর্টিফিশিয়াল আলোর ব্যবহার বিশেষ করে গত দশকে ল্যাপটপ ও মোবাইল ডিভাইসের বহুল ব্যবহারে ববাবরই প্রশ্ন তুলেছে মানুষের স্বাস্থ্য নিয়ে। বিশেষ করে এই আলো থেকে নির্গত নীল তরঙ্গদৈর্ঘ্য অনেকভাবে বিপদ ডেকে আনে মানুষের স্বাস্থ্যে। এই বিষয়ে ইতিমধ্যেই অনেক গবেষণা হয়েছে বিশ্ব্যব্যাপী। আর নতুন এই এক গবেষনা ও তার ফল অবশ্যই প্রশ্ন তুলে দিল এই আলোর ব্যবহার নিয়ে। সূত্র- টাইমস অফ ইন্ডিয়া