ব্যয় বাড়লেও নির্ধারিত সময়ে খুলনার ময়লাপোতা-জিরোপয়েন্ট সড়কের কাজ শেষ হওয়া নিয়ে শঙ্কা!

0
30

নিজস্ব প্রতিবেদক:

খুলনার ময়লাপোতা মোড় হতে জিরো পয়েন্ট পর্যন্ত ৪ কিঃ মিঃ সড়কের চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পটি কার্যাদেশ অনুযায়ী শেষ হওয়ার কথা ছিলো চলতি মাসের ৭ এপ্রিল। তবে বাস্তবে ফেব্রুয়ারির শেষ নাগাদ কাজের অগ্রগতি ছিল ৫৫ শতাংশ। এমতাবস্থায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান খুলনা সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) বরাবর কাজের সময়সীমা বৃদ্ধির আবেদন করলে সওজ চলতি বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত কাজের সময়সীমা বৃদ্ধি করেছে । প্রকল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট নতুন কিছু কাজ অন্তর্ভুক্তির কারণে প্রকল্পের ব্যয়ও বৃদ্ধি হতে পারে বলে খুলনা সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) এর নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আনিসুজ্জামান মাসুদ এ প্রতিনিধিকে জানিয়েছেন। তবে সময়সীমা বৃদ্ধির পরও আগামী ৩০ জুনের মধ্যে প্রকল্পের কাজের সমাপ্তি নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

জানাযায়, গত ২৪ মাসে কাজের অগ্রগতি মাত্র ৬৫ শতাংশ। ৩০ জুনের মধ্যে প্রকল্পের কাজ সমাপ্ত করতে হলে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে আগামী দুই মাসে ৩৫ শতাংশ কাজ করতে হবে। কাজের এই দীর্ঘ সূত্রতার কারণে উক্ত সড়ক দিয়ে চলাচলকারী যানবাহনসহ পথচারীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এদিকে বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) সকালে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পের সড়কের পাশ দিয়ে পানি নিস্কাশনের জন্য ড্রেনেজ ব্যবস্থা কেমন হবে তা সরেজমিনে পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে সড়কের ড্রেন সোজাভাবে নির্মাণের জন্য নির্দেশনা প্রদান করেন।

পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন, খুলনা সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) এর নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আনিসুজ্জামান মাসুদ, চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পের তদারকি কর্মকর্তা সওজ এর উপ-সহকারী প্রকৌশলী এইচ এম শোহেব হোসেন ও প্রজেক্ট ম্যানেজার ইঞ্জিনিয়ার আশরাফ আলী প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, খুলনা-চুকনগর-সাতক্ষীরা মহাসড়কের খুলনা শহরাংশ (৪.০০ কিঃ মিঃ) চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পটি ২০১৯ সালের ২৭ আগস্ট একনেকে অনুমোদন পায়। টেন্ডার আহ্বানের পর আতাউর রহমান খান লিঃ এবং মাহবুব ব্রাদার্স (প্রাঃ) লিঃ জেভি (জয়েন্ট ভেঞ্চার) নামে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে ২০২০ সালের ৮ এপ্রিল কার্যাদেশ দেওয়া হয়। ডিপিপি অনুযায়ী প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয় ১০ হাজার ৭০ দশমিক ২০ লাখ টাকা। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তিমূল্য হয় ৮ হাজার ৭৮ দশমিক ৬৯ লাখ টাকা। চুক্তির মেয়াদ ছিল ২ বছর অর্থাৎ ২০২২ সালের ৭ এপ্রিল প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিলো।

প্রকল্পের মূল কাজ ধরা হয় ৪-লেন সড়ক নির্মাণ ৪.০০ কিলোমিটার। বিদ্যমান সড়ক পুনঃনির্মাণ ৪.০০ কিঃ মিঃ। সার্ফেসিং ( ডিবিএস বেইজ কোর্স ১৫০ মিমিও ওয়ারিং কোর্স ৫০ মিমি পুরু) ৪.০০ কিঃ মিঃ। আরসিসি বক্স কালভার্ট নির্মাণ ৫ টি। সড়ক ডিভাইডার নির্মাণ ৩.৭৬ কিঃমিঃ। কংক্রিট ইউ ড্রেন নির্মাণ ৮.০০ কিঃ কিঃ। রক্ষাপ্রদ কাজ ১২শ’ মিটার। প্রকল্পটি বাস্তবায়নকারী মন্ত্রণালয় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় এবং বাস্তবায়নকারী সংস্থা সড়ক বিভাগ, খুলনা (সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর)।

সর্বশেষ জনদুর্ভোগ লাঘবে চলমান চার লেন সড়কের কাজ দ্রুত শেষ করতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছে  নগরবাসি।