বুধহাটার পাইথালী-বাঁকড়া কার্পেটিং সড়কে ধ্বস ৪৫ দিন অতিবাহিত হলেও সংস্কার হয়নি

0
369

মইনুল ইসলাম, আশাশুনি: আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের পাইথালী কামারবাড়ী মোড় টু শোভনালী ইউনিয়নের বাঁকড়া কার্পেটিং সড়কের ২ স্থানে ভয়াবহ ধস নেওয়ার ৪৫ দিন অতিবাহিত হলেও সংস্কার করা হয়নি। দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে বড়ধরনের ক্ষতির আশংকা বিরাজ করছেন পথচারী ও এলাকাবাসীর মধ্যে। সড়কটি উপজেলার দ্রুতপূর্ণ সড়কের মধ্যে একটি। আশাশুনি, শোভনালী, চাম্পাফুল, শ্রীউলা ও বুধহাটা ইউনিয়নসহ আশপাশের কয়েকটি ইউনিয়নের মানুষ এ সড়ক দিয়ে নিয়মিত সাতক্ষীরাসহ বিভিন্ন এলাকায় যানবাহনে যাতয়াত করে থাকে। সড়কটির গুরুত্ব বিবেচনা করে সড়কটি কার্পেটিং করা হয়েছে। অতি সম্প্রতি উদ্বোধনকৃত জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কের কুঁন্দুড়িয়া শশ্মানঘাটের কাছে পাউবো’র বাঁধের উপর কার্পেটিং রাস্তার বড় অংশে ফাঁটল দেখা দিয়েছে। বাঁধের নিম্নাংশের মাটি বসে যাওয়ায় ফাঁটলের সৃষ্টি হয়েছে বলে এলাকাবাসী ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানাগেছে। মাত্র কয়েক হাতের ব্যবধানে পরপর দু’টি স্থানে ফাঁটল ধরেছে। ফাঁটল এতটা বড় আকার ধারণ করেছে, যে কোন সময় যানবাহন পড়ে দূর্ঘটনায় কবলিত হতে পারে। যদিও ধসকৃত স্থানে গাছের ডাল বা বাঁশের অংশ বিশেষ পুতে সতর্ক করা হয়েছে। তারপরও হুমকী রয়েগেছে। স্থানীয়রা জানান, ঘেরের পানি নিস্কাশন করার পর সড়কের ধস নামতে শুরু করে। ওয়াপদার বাঁধের ধসের কারনে ফাঁটল ৪০/৪৫ দিন অতিবাহিত হলেও সড়ক রক্ষার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। এব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী আক্তার হোসেন বলেন, পাউবো’র বাঁধ বসে ধস নেওয়ায় রাস্তায় ফাঁটল শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে পাউবো’র কর্মকর্তাকে বাঁধ রক্ষার ব্যবস্থা নিতে কথা বলেছি। সাথে সাথে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে রাস্তার কাজ করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।