বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে শক্তির জানান দিলো মেক্সিকো

0
389

স্পোর্টস ডেস্ক:
বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে হারিয়ে দিলো মেক্সিকো। নিজেদের প্রথম ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে ১-০ গোলে জয় পেয়েছে উত্তর আমেরিকার দেশটি। ম্যাচের ৩৫ মিনিটে একমাত্র গোলটি করেন হিরভিং লোজানো। নেদারল্যান্ডসের ক্লাব পিএসভির হয়ে খেলা ২২ বছর বয়সী এই উইঙ্গার ৩৫ মিনিটে গোলটি করেন।

এই নিয়ে টানা সাতবার বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে মেক্সিকো। প্রতিবারই আশা জাগিয়ে শুরু করেও শেষ ষোল থেকেই বিদায় নিতে হয় দেশটিকে।

আজ রোববার জার্মানির বিরুদ্ধে ম্যাচে জয় দিয়েই বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করেছে হুয়ান কার্লোস ওসোরিয়োর দল। ৫৭ বছর বয়সী এই কোচের পছন্দের স্টাইল হলো দ্রুতগতিতে আক্রমণ তুলে আনা। আর সেই স্টাইলেই জার্মানির বিরুদ্ধে জয় তুনে নিয়ে আসতে সক্ষম হয়েছে এই কলোম্বিয়ান।

হেভিওয়েট প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে নামার আগে মেক্সিকো শিবিরকে স্বস্তিতে রেখেছিলো বিগত পাঁচটি বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে তাদের পরিসংখ্যান। গেলো পাঁচ বিশ্ব ফুটবলের সবচেয়ে বড় এই মঞ্চে প্রথম ম্যাচে হারেনি মেক্সিকানরা। আর তারই ধারবাহিকতা বজায় রাখলো এল ট্রায়ো খ্যাত দলটি।

ম্যাচের ৭৩ মিনিটে অধিনায়ক আন্দ্রেস গুয়ারদাদো বদলি খেলোয়াড় রাফায়েল মার্কেসের কাছে আর্ম ব্যান্ড বুঝিয়ে মাঠ ছাড়েন। এতেই কিংবদন্তি মার্কেস অনন্য মাইলফলক স্পর্শ করলেন। ৩৯ বছর বয়সী এই ডিফেন্ডোর ফুটবলের ইতিহাসের চতুর্থ খেলোয়াড় হিসেবে পাঁচ নম্বর বিশ্বকাপ খেলার কীর্তি গড়লেন।

১৯৯৭ সালে জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক হয় মার্কেসের। যদিও ১৯৯৮ সালের বিশ্বকাপ একাদশে সুযোগ হয়নি তার। তবে ২০০২, ২০০৬, ২০১০ ও ২০১৪ সালের খেলেছেন সবুজ জার্সিতে। বার্সেলোনার সাবেক এই তারকা এই দিন ক্যারিয়ারের ১৪৩তম ম্যাচ খেললেন।

পাঁচবার বিশ্বকাপ খেলা বাকি তিন জন ফুটবলার হচ্ছেন- লোথার ম্যাথিউস (জার্মানি), আন্তোনিও কারবাহাল (মেক্সিকো) ও জানলুইজি বুফন (ইতালি)।