বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম মঞ্জুর জামিন লাভ

0
276

বিজ্ঞপ্তি : বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার রায় ঘোষণার দিন সরকারি কাজে বাধা দানের অভিযোগে সদর থানায় দায়েরকৃত মামলায় জামিন পেয়েছেন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও নগর সভাপতি, সাবেক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম মঞ্জু। মঙ্গলবার দুপুরে খুলনা মুখ্য মহানগর আদালতে তিনি হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে বিচারক কণিকা বিশ^াস জামিন মঞ্জুর করেন।
গত ৮ ফেব্রæয়ারি ‘মাদার অব ডেমোক্রেসি’ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগের রাজনৈতিক প্রহসনের মামলায় রায়ের দিন সারাদেশের ন্যায় নগরীর কেডি ঘোষ রোডে দলীয় কার্যালয়ে সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচিতে পুলিশী হামলা চালিয়ে কয়েকজনকে আটক করে। পরে নগর বিএনপি’র সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জুসহ ২৮ নেতা-কর্মীর নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ৫০/৬০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন খুলনা থানার এস আই সুজিত মিস্ত্রি (মামলা নং-১২, ০৮/০২/২০১৮)।
মামলার বিবাদীপক্ষের আইনজীবী এড. গোলাম মওলা জানান, খুলনা সিটি নির্বাচনের আগে তিনি হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ থেকে ৮ সপ্তাহের আগাম জামিন নেন। এর আগে হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী গত রবিবার দুপুরে খুলনা মুখ্য মহানগর আদালতে তিনি হাজিরা দেন। তবে হাইকোর্ট থেকে মামলার নথিপত্র না আসায় মঙ্গলবার জামিন শুনানির পুনঃতারিখ ধার্য করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে শুনানির পর তার জামিন মঞ্জুর করা হয়। একই মামলায় এড. ফজলে হালিম লিটনেরও জামিন মঞ্জুর করা হয়েছে। এ সময় এ্যাড. বজলুর রহমান, এ্যাড. মঞ্জুর রশিদ, এ্যাড. মাসুদ হোসেন রনি, এ্যাড. জিল্লুর রহমান খান, এ্যাড. মোমরেজুল ইসলামসহ বিপুল সংখ্যক আইনজীবী হাজির ছিলেন।
মামলায় হাজিরার সময় কেসিসির মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, সিরাজুল ইসলাম, রেহানা আখতার, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, অধ্যাপক আরিফুজ্জামান অপু, সিরাজুল হক নান্নু, আসাদুজ্জামান মুরাদ, আজিজুল হাসান দুলু, একরামুল হক হেলাল, হাসানুর রশিদ মিরাজসহ বিএনপি এবং অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।