বাগেরহাট আন্তর্জাতিক সংখ্যালঘু অধিকার দিবস পালন

0
666

আজাদুল হক, বাগেরহাট: বাগেরহাট র‌্যালী ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক সংখ্যালঘু দিবসে’র কর্মসুচী পালন করা হয়েছে। বেসরকারী মানবাধিকার সংস্থা শারি’র সহযোগিতায় শনিবার সকালে বাগরহাট জেলা সদর ও ফকিরহাটে পৃথকভাবে এ কর্মসুচী পালন করা হয়। সদর উপজেলা সুরক্ষা, নাগরিক অধিকার ও মর্যাদা (সুনাম) কমিটির আয়াজনে বাগেরহাট ফাউন্ডেশন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সুনামের জেলা শাখার সভাপতি সাবেক শিক্ষক মূখার্জী রবীন্দ্রনাথ রায়। সুনামের সদর উপজেলা কমিটি’র সভাপতি মিঠুন চক্রবর্ত্তির সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন সুনামের জেলা সাধারন সম্পাদক রবীন্দ্র নাথ দেবনাথ, শারি’র সমন্বয়কারী রঞ্জন বকসী নুপু, ও বাগেরহাট পিসি কলেজ’র রোভার মুড সাহানুর রহমান। এর আগে বাগেরহাট প্রেসক্লাব সম্মুখ থেকে একটি রেলী বের হয়ে শহর প্রদক্ষিন করে। একই দিন জেলার ফকিরহাট উপজেলা সুনাম কমিটি’র আয়োজনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মিলনায়তনে আলোচনা সভা হয়। এখানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহানাজ পারভিন। সুনামের উপজেলা সভাপতি সবুজ দাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজলা স্বা¯্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ ফেরদৌসী আক্তার, সাবেক শিক্ষক শিশির কুমার দাস ও শারির পলাশ কুমার দাস প্রমূখ। এর আগে উপজেলা সদরে র‌্যালী হয়। এর আগর দিন শুক্রবার সকাল কচুয়া উপজলা প্রসক্লাব মিলনায়তন অনুরপ র‌্যালি, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। আলোচক’রা তাদের বক্তব্যে বলেন জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ২০১৩ সালর উপস্থাপিত প্রতিবেদনে ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপসংহার সম-নাগরিকত্ব নিশ্চিত করার আহবান জানানো হয়। জাতীয়তা অথবা গোষ্ঠীগত, ধর্মীয় এবং ভাষাগত সংখ্যালঘুদের অধিকার বিষয়ক জাতিসংঘ ঘোষণা পত্রের অনুচ্ছেদ-১ অনুসারে নিজ নিজ এলাকার মধ্যে প্রত্যেক সংখ্যলঘু সম্প্রদায়ের অস্তিত্ব এবং জাতীয়তা অথবা গোষ্ঠীগত, সাংস্কৃতিক, ধর্মীয় এবং ভাষাগত পরিচয় রক্ষার দায়িত্ব রাষ্ট্রের। #