বশেমুবিপ্রবি’র উপচার্যের পদত্যাগ দাবি সাবেক শিক্ষার্থীদের

0
348

নিজস্ব প্রতিবেদক:
গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদালয়ে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবি এবং আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে একাত্বতা প্রকাশ করে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করেছে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রছাত্রীদের ফোরাম।
শনিবার দুপুরে খুলনা প্রেসক্লাবের সামনে প্রাঙ্গনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন শেষে ক্লাবের হুমায়ুন কবীর বালু মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বশেমুরবিপ্রবি অ্যালামনাই এসোসিয়েশন পক্ষে সম্রাট বিশ্বাস।
তিনি বর্তমান উপচার্যকে খন্দকার নাসির উদ্দিকে, দুর্নীতিবাজ, নিযোগ বানিজ্য, ভর্তি বানিজ্য বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পর টাকা লুটপাট, ভিসি কোটা চালু, নারী কেলেঙ্কারী, ভিসির বাসায় বিউটি পার্লার কেলেঙ্কারীর সাথে জড়িত বলে আখ্যা দেন।
তিনি আরও বলেন, এই উপচার্য ১৯৯৪-৯৫ সালে কৃষি বিশ্ব বিদ্যালয়ে জামাত-শিবির সমর্থিত সাদা দলের হয়ে নির্বাচন করেছেন বলে জানানো হয়। বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল এবং শহীদ মিনার স্থাপনের জন্য ২ কোটি ৪০ লাখ টাকা ব্যয় দেখানো হলেও বাস্তবে তার কোন অস্তিত্বই নাই।
সম্প্রতি গ্রামবাসীর সাথে ছাত্রদের বিরোধের সময় ৬/৭জনকে চা আপ্যায়ন বাবদ ৪০ হাজার টাকা ব্যায় দেখানো হয়েছে এবং একইভাবে ছাত্র কল্যান ফান্ড থেকে এক লাখ টাকা অ্যাপায়ন বিল দেখানো হয়েছে। বলা হয় ভারতের হায়দারাবাদের গাছ আনার কথা বলে যশোর থেকে গাছ নিয়ে আসা হয়েছে। এসব ঘটনার প্রতিবাদ কোন ছাত্রছাত্রী করলে তাকে বহিস্কার করা হয়। এই বহিস্কার প্রক্রিয়াই খুলনার মেধাবী ছাত্র অর্ঘ্য আত্মহত্যা করে বলেও দাবি করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিপুল সংখ্যক সাবেক ও বর্তমান ছাত্রছাত্রীরা উপস্থিত ছিলেন।