বগুড়ায় গরু চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে নিহত ১

0
151

খুলনাটাইমস: বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলায় গরু ‘চুরি করতে গিয়ে’ উজ্জ্বল হোসেন (৩২) নামে এক চোর গণপিটুনিতে নিহত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার দুপুর পোনে ১টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন নন্দীগ্রাম উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য জাহাঙ্গীর আলম। এর আগে গত বৃহস্পতিবার মধ্য রাতে উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের শেখের মারিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত উজ্জ্বল নন্দীগ্রাম উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের রায়পাড়া গ্রামের নইমুদ্দিনের ছেলে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নন্দীগ্রাম উপজেলার শেখের মারিয়া গ্রামের কৃষক বেলাল হোসেনের গোয়াল ঘরের তালা কেটে ভেতরে ঢুকে গরু চুরির চেষ্টা করে চোরের একটি দল। এ সময় বাড়ির মালিক টের পেয়ে চিৎকার করলে চোরেরা পালানোর চেষ্টা করে। তখন গ্রামবাসী একত্র হয়ে চোরদের ধাওয়া করে। অন্যরা পালিয়ে গেলেও উজ্জ্বল হোসেনকে ধরে ফেলে তারা। এরপর তাকে গণপিটুনি দেয় গ্রামবাসী। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় উজ্জ্বল হোসেন। ভাটরা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য জাহাঙ্গীর আলম জানান, এই এলাকায় গত কয়েক দিনের মধ্যে বেশ কয়েকটি গ্রামে গরু চুরির ঘটনা ঘটেছে। শেখের মারিয়া গ্রামের বেলালের বাড়িতে গরু চুরি করতে এসে এলাকাবাসী চোরকে ধরে ফেলে। এ সময় আরও কয়েক জন চোর পালিয়ে গেছে। এলাকাবাসীর গণপিটুনিতে উজ্জ্বল হোসেন নামে এক পেশাদার চোর নিহত হয়েছে। নন্দীগ্রাম থানার ওসি শওকত কবির জানান, গরু চুরি করতে গিয়ে একজন গণপিটুনিতে নিহতের ঘটনায় ঘটনাস্থল থেকে উজ্জ্বল হোসেন নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশটি বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।