ফকিরহাটে অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গড়ে উঠেনি শহীদ মিনার

0
545

এম জাকির হোসেন, ফকিরহাট থেকে :
সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের চরম অবহেলা ও উদাসিনতার কারনে আজও ফকিরহাট উপজেলায় অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গড়ে উঠেনি শহীদদের প্রতি সম্মান জানানোর জন্য স্মৃতি সৌধ বা শহীদ মিনার। সরকারের নির্দেশ রয়েছে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার বাধ্যতামূলক থাকতে হবে। এসব নিজস্ব তহবিলে অর্থাঅভাবের কারনেই শহীদ মিনার নির্মান হচ্ছেনা বলে নাম প্রকাশে ইচ্ছুক কয়েকটি বিদ্যালয়ের শিক্ষককা জানান। তবে কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিজস্ব তহবিলের অর্থায়নে শহীদ মিনার নির্মান করছে। ভাষা আন্দোলন দীর্ঘ পাঁচযুগেরও বেশী দিন অতিবাহিত হলেও এখনো পর্যন্ত অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার তৈরী না হওয়ায় ছাত্র-ছাত্রীরা মাতৃভাষা দিবস, বিজয় দিবস ও স্বাধীনতা দিবসে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানায় খোলা ইট ও কলাগাছ দিয়ে তৈরী শহীদ মিনারের উপর নির্ভর করে। এসব দিবসের আগে দেখা যায়, কলাগাছ ও ইটের পর ইট রেখে শহীদ মিনার তৈরী করা হয়। ফকিরহাট উপজেলাস্থ নির্মিত স্থায়ী শহীদ মিনার ছাড়া বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে যেমন রয়েছে শিরিন হক পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, শিরিন হক সরঃ প্রাঃ বিদ্যালয়, শশধর সমাজ কল্যান মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মানসাÑবাহিরদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মৌভোগ মধ্যপাড়া প্রাঃ বিদ্যালয়, আপার মৌভোগ প্রাঃ বিদ্যালয়, কামটা প্রাঃ বিদ্যালয়, নলধা প্রাঃ বিদ্যালয়, পশ্চিম বাহিরদিয়া সরঃ প্রাঃ বিদ্যালয়, আট্টাকা সরঃ প্রাঃ বিদ্যালয়, বুড়িরবটতলা সরঃ প্রাঃ বিদ্যালয়, সাতশৈয়া প্রাঃ বিদ্যালয়, রাজপাঠ সরঃ প্রাঃ বিদ্যালয়, পাগলা-শ্যামনগর সরঃ প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ ৮ইউনিয়নের অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের শহীদদের প্রতি সন্মান জানাতে নির্ভর করতে হয় কাঠ, ইট ও কলাগাছের উপর। কৃতিম স্মৃতিসৌধ তৈরী করে তারা মাল্যদান করে থাকে। ছাত্রÑছাত্রীদের ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা জানানোর এ প্রক্রিয়া মায়ের ভাষার প্রতি অপার ভালোবাসা যেমন ফুটে উঠেছে, তেমনি ভাষা শহীদদের স্মৃতির মিনার প্রতিষ্ঠায় সরকারী ও বে-সরকারী প্রাতিষ্ঠানিক দৈন্যতার চিত্রও ফুটে উঠেছে। সূত্র জানায়, সরকারীভাবে কোন বরাদ্ধ না থাকায় এসব স্কুলে শহীদ মিনার নির্মান করা সম্ভব হচ্ছেনা বলে জানা যায়। এ ব্যাপারে ফকিরহাট উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ শহিদুল ইসলাম জানায়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নিমার্নের জন্য সরকারী কোন বরাদ্ধ নেই। তবুও সরকারের নিদের্শ রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে শহীদ মিনার থাকতে হবে। এটা বাধ্যতামূলক বলেও তিনি জানান। কয়েকটি স্কুল-কলেজে তাদের নিজস্ব নিজস্ব অর্থাঅয়নে শহীদ মিনার তৈরী করেছেন। কোন কোন প্রতিষ্ঠান নির্মান করার উদ্যোগ গ্রহনও করেছেন।#