প্রিপেইড মিটারঃ গ্রাহকদের আতংকের নাম

0
1144
শেখ মোঃ নাসির উদ্দিনঃ
আজ (৪ ডিসেম্বর) একজন গ্রাহক সকালে ( খুলনা ওয়েস্ট জোনের ) তার প্রিপেইড মিটারের জন্য টাকা রিচার্জ করতে গেলেন, দিলেন ২০০০ টাকা, কস্ট মেমোতে পেলেন ১৩৫৪.৭৬ টাকা ।  তিনি কাউন্টারে জিজ্ঞাসা করলে, সেখান থেকে বললো আমাদের কোনো কিছুই করার নেই, যেভাবে নির্দেশ  আসে আমরা সেভাবেই চার্জ কাটি । দেখা গেলো তার মেমোতে মিটার বাবদ ২৫০ টাকা, ডিমান্ড চার্জ ৩০০ টাকা, ভ্যাট ৯৫.২৪ টাকা, মোট ৬৪৫.২৪ টাকা কেটে নেয়া হয়েছে । গ্রাহক আবুল কালাম আজাদ এই প্রতিবেদকের কাছে অভিযোগ করে বলেন আর কত দিন আমরা এর ভুক্তভোগি হবো? এর কি কোনো প্রতিকার নেই। একটি প্রিপেইড মিটারের দাম কত হতে পারে মাসে যদি ২৫০ টাকা করে নেই বছরে সে নিচ্ছে ৩০০০ টাকা । প্রথমে ফ্রীর কথা বলে এখন টাকা নেয়া সম্পূর্ণ অবৈধ এটা গ্রাহকের সাথে প্রতারণা । গ্রাহক মোঃ দেলোয়ার হোসেন বলেন আগেই ভালো ছিলো বিদুৎ বিল কম আসতো, আর এখন কমতো দুরের কথা যে হয়রানি হতে হয়, লাইনে ঘন্টার পর ঘন্টা  দাড়িয়ে থাকতে হয়। এরপর এখন বারকোড চাপতে হয় একশটি আগে ছিলো পচিশটি, এটাও চাপতে কমপক্ষে ১৫/২০ মিনিট সময় লাগে । এ ব্যাপারে খুলনা ওয়েস্ট জোনের  এমডির সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।