প্রাণ ফিরে পেলো মার্কিন সরকারি কার্যক্রম

0
365

অনলাইন ডেস্ক :
টানা তিনদিনের অচলাবস্থার অবশেষে সচল হলো যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রে সাময়িক অর্থবরাদ্দ সংক্রান্ত বিলের বিষরয় রিপাবলিকান এবং ডেমোক্রেটদের মধ্যে সমঝোতার পর মার্কিন সরকারি কার্যক্রম প্রাণ ফিরে পেলো। সোমবার রাতেই ওই বিলে স্বাক্ষর করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। খবর : বিবিসির।

স্থানীয় সময় গত সোমবার রাতে হাউস ও সিনেটে এই ভোটাভুটি হয়। অর্থবরাদ্দ বিল সিনেটে ৮১-১৮ ভোটে পাস হয়। প্রতিনিধি পরিষদে ২৬৬-১৫০ ভোটে পাস হয়। অর্থ বরাদ্দ-সংক্রান্ত একটি বিল মার্কিন সিনেটে আটকে যাওয়ার পর ফেডারেল সরকারের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেলে দেশটিতে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়ে ছিল।

এর ফলে বহু সরকারি বিভাগ – যেমন গৃহায়ন, পরিবেশ, শিক্ষা এবং বাণিজ্য দফতরের বেশিরভাগ কর্মকর্তাই কাজে যাচ্ছেন না। এছাড়া অর্থ, স্বাস্থ্য, প্রতিরক্ষা এবং যোগাযোগ – এই বিভাগগুলোর অর্ধেক কর্মচারী কাজ থেকে বিরত থাকেন। জাতীয় উদ্যান এবং স্মৃতিসৌধগুলো বন্ধ হয়ে যায়, ভিসা এবং পাসপোর্টের কাজ বিলম্বিত হয়।

রোববার পর্যন্ত কোনো সমাধানে আসতে পারেনি মার্কিন সিনেট। ট্রাম্প ও রিপাবলিকানদের সঙ্গে ডেমোক্রেট দলের মতানৈক্য ছিল। পরে সরকারের কার্যক্রম পুনরায় সচল করতে ভোট দেয়ার বিষয়ে সম্মত হয় ডেমোক্রেটরা। রিপাবলিকানদের সঙ্গে অভিবাসন নীতি নিয়ে আলোচনা অব্যাহত রাখার পরিপ্রেক্ষিতে ভোট দিতে রাজি হন তারা। পরবর্তী সময়ে ড্রিমার্স হিসেবে পরিচিত অনথিভুক্ত অভিবাসীদের সুরক্ষার বিষয়গুলো নিয়ে বিতর্কের আয়োজন করা হবে এমন প্রতিশ্রুতির ভিত্তিতেই ওই বিল অনুমোদনে সম্মতি জানান ডেমোক্রেটরা।

আট লাখ অস্থায়ী কর্মীকে স্থায়ী করার দাবি জানিয়েছেন ডেমোক্রেটরা। ড্রিমারর্সদের পক্ষ নিয়ে তারা বলছেন, অনেকেই শিশু অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্রে এসেছেন। কিন্তু এখনও বেআইনি অভিবাসী হয়েই রয়ে গেছেন তারা। আগামী মার্চ মাসে শেষ হয়ে যাচ্ছে তাদের আইনি নিরাপত্তার সময়সীমা। সে ক্ষেত্রে অন্তত ৭ লাখ তরুণ অভিবাসীকে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়তে হবে। তরণ অভিবাসীদের যেন বিতাড়িত করা না হয় সেজন্য রিপাবলিকানদের কাছ থেকে আশ্বাস চেয়েছেন ডেমোক্রেটরা।

ক্যাপিটল হিল একটি দীর্ঘমেয়াদী বাজেট বিলে সম্মতি জানায়নি বলেই এই স্বল্পমেয়াদী বিলে পাশ করা হলো। ফেব্রুয়ারির ৮ তারিখ পর্যন্ত এই বিলের ওপরই মার্কিন সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের কার্যক্রম চলবে।

সোমবার দিনের শুরুতেই হাউস অব রিপ্রেজেনটেটিভ ও সিনেটে ওই ভোট হয়। সাময়িক অর্থবরাদ্দ সংক্রান্ত বিল অনুমোদনের পক্ষে সিনেটে ভোট পড়েছে ৮১টি এবং বিপক্ষে পড়েছে ১৮টি। আর হাউস অফ রিপ্রেজেনটেটিভে বিলের পক্ষে ২৬৬টি এবং বিপক্ষে ১৫০ টি ভোট পড়েছে।

ফেব্রুয়ারির ৮ তারিখ পর্যন্ত এই স্বল্পমেয়াদী বিলের মেয়াদ থাকবে। তবে এর মধ্যেই কংগ্রেস দীর্ঘমেয়াদী বাজেট চুক্তি করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার স্বল্পকালীন বাজেটের প্রস্তাব হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভ বা মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের ভোটে পাশ হয়। শুক্রবার রাতেই বাজেট বিল পেশ করেন রিপাবলিকানরা। কিন্তু শেষ মূহূর্তেও ডেমোক্রেটদের সঙ্গে মতের মিল না হওয়ায় তা আটকে যায়। ফলে কয়েক হাজার ফেডারেল কর্মকর্তা সাময়িকভাবে কর্মহীন হয়ে পড়েন আবার অন্য কর্মকর্তারা অবৈতনিক ছুটিতে যেতে বাধ্য হন।

অবশেষে স্বল্পমেয়াদী বিল পাশ হওয়ায় এসব কর্মকর্তারা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন। সিনেটে রিপাবলিকান নেতা মিচ ম্যাককনেল বলেন, অভিবাসন নীতি নিয়ে ডেমোক্রেটরা যে দাবি জানিয়েছেন তার ওপর ভিত্তি করে একটি আলোচনার ব্যবস্থা করবে তার দল। এর আগে সরকারি কার্যক্রম শুরুর ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ভোট ডেমোক্রেটরা না দিলে কোনো ধরনের আলোচনায় বসা হবে না বলে জানিয়েছিলেন রিপাবলিকানরা।

স্বল্পমেয়াদী বিলে ডেমোক্রেটরা ভোট দেয়ার পর এক বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, আমি খুশি যে ডেমোক্রেটরা তাদের চেতনায় ফিরে এসেছে। অভিবাসন নীতিতে আমরা একটি দীর্ঘমেয়াদী চুক্তি করব। যা আমাদের দেশের জন্য ভালো হবে আমরা তাই করব।