প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই হচ্ছে মোমবাতির আলোক শিখা : জেলা প্রশাসক

0
162

কয়রা প্রতিনিধি: খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন বলেছেন, প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই হচ্ছে, মোমবাতির আলোক শিখা। বর্তমান সরকার শিক্ষা মান উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। শিশুরা তাদের নৈতিক শিক্ষা লাভ করে থাকে শিক্ষকদের কাছ থেকে। একটি শিশু শিক্ষকদের কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহন করে মানুষের মত মানুষ হয়। এ জন্য সমাজ উন্নয়নে শিক্ষকদের ভুমিকা রয়েছে অনেক। শিক্ষা একজন ব্যক্তিকে ভালো মানুষ, আচরণ, বিনয়ী, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা, আদর্শবান হতে শেখায়। পাশাপাশি বিজ্ঞান বিষয়ে নতুন নতুন চিন্তা করলে সুফল পাওয়া যায়। ফলে শিক্ষার্থীদের এ বিষয়ে চিন্তা করার আহ্বান জানান।
মঙ্গলবার দুপুরে কয়রা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলার উপজেলা পরিষদ চত্বরে জনপ্রতিনিধিবৃন্দ, শিক্ষকবৃন্দ ও সুধী সমাজের প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে শিক্ষার মনোন্নয়নে ” চাইল্ড ইনটেগ্রিটি ও শিশু বঙ্গবন্ধু ফোরাম” এর শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক এ সব কথা বলেন। সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিমুল কুমার সাহার সভাপতিত্বে প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব নুরুল আমিন নাহিদ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত বক্তব্য রাখেন , বাগেরহাট জেলা প্রশাষক সার্বিক শাহিনুজ্জামান (শাহিন), কয়রা উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শফিকুল ইসলাম,আরো বক্তব্য রাখেন,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাছিমা আলম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) নূরে আলম সিদ্দিকি, কয়রা থানা অফিসার ইনচার্জ রবিউল হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আমির আলী গাইন, শিক্ষা অফিসার আবুল বাশার, অধ্যক্ষ ডা. চায়ন কুমার রায়,রাজিব বাদাড়, শিক্ষক সমিতির সভাপতি শহীদ সরোয়ার, সাধারন সম্পাদক আব্দুল খালেক প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস এম রাসেল ইসলাম নূর, মোঃ তকী ফয়সাল তালুকদার, দেবাশীষ বসাক,শারমিন জাহান লুনা, নূরী তাসনিম উর্মি, চেয়ারম্যান আঃ সাত্তার পাড়, সরদার নূরুল ইসলাম কোম্পানী, এইচ এম হুমায়ুন কবির, আব্দুল্লাহ আল মামুন লাভলু, কবি জিএম শামছুর রহমান সহ সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, শিক্ষক ও সুশিল সমাজের লোকজন। এর আগে জেলা প্রশাসক চন্ডীপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আয়োজনে প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে শিক্ষকদের জন্য ‘শিক্ষা নিবাস’ নামক ডরমিটরী উদ্ধোধন ও চাউল্ড ইনটেগ্রিটি ও শিশু বঙ্গবন্ধু ফোরাম বিষয়ক মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন। আমাদী ইউনিয়ন ভুমি অফিসের বিশেষ সেবা ক্যাম্প উদ্ধোধন করার পাশপাশি ঝেলা প্রশাসক কয়রা সদরের সুন্দরবন বালিকা বিদ্যালয়ের নব নির্মিত বেগম রোকেয়া গেট ফিতা কেটে উদ্ধোধন করেন।