পুলিশ সদস্যদের অপরাধে জড়িত নিয়ে হুশিয়ারী বার্তা খুলনা রেঞ্জ ডিআইজ’র

0
349

খবর বিজ্ঞপ্তি:
বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় রেঞ্জ ডিআইজি, খুলনা’র সম্মেলন কক্ষে আগস্ট/২০১৯ মাসের অপরাধ পর্যালোচনা সভা ড. খঃ মহিদ উদ্দিন, বিপিএম (বার), ডিআইজি, খুলনা রেঞ্জের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় আগস্ট/২০১৯ মাসের অপরাধের পরিসংখ্যান নিয়ে বিস্তারিত আলোচনার সাথে অপরাধ রোধ এবং মামলা তদন্ত ও নিষ্পত্তির বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিক নির্দেশনা প্রদান করেন রেঞ্জ ডিআইজি।
খুলনা রেঞ্জে আইন-শৃঙ্খলা, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা এবং কমিউনিটি পুলিশিংসহ থানা, ফাঁড়ি, তদন্ত কেন্দ্র, ক্যাম্পের কার্যক্রম জনবান্ধবরূপে গড়ে তোলার এবং পুলিশি সেবা জনসাধারণের দৌড়গোড়ায় পৌঁছানোর বিষয়ে নির্দেশনা প্রদান করেন।
জঙ্গীবাদ, মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি বহাল রেখে কার্যকরী আইনানুগ পুলিশি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য এবং মাদক, জঙ্গীবাদ দমন ও নিয়ন্ত্রণে সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে নিয়ে কাজ করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করেন। রেঞ্জের অপরাধ পরিসংখ্যান পর্যালোচনায় দেখা যায় আগস্ট/১৯ মাসে বিভিন্ন খাতে মোট ১৭৩০টি মামলা রুজু হয়েছে এবং জুলাই/১৯ মাসে ২০০০টি মামলা রুজু হয়েছিল যা গত মাস অপেক্ষা চলতি মাসে ২৭০টি কম রুজু হয়েছে।
রেঞ্জের মাদক মামলা পর্যালোচনায় দেখা যায় আগস্ট/১৯ মাসে মোট ৭৯৯টি মামলা রুজু হয়েছে এবং গত জুলাই/১৯ মাসে ৯৪৫টি মামলা রুজু হয়েছিল যা গত মাস অপেক্ষা ১৪৬টি কম। আগস্ট/১৯ মাসে আনুমানিক ১,৭৩,৮০,০০০ টাকার মাদকদ্রব্য উদ্ধার হয়েছে এবং গত জুলাই/১৯ মাসে আনুমানিক ৭৬,৩৬,৬৪০ টাকার মাদকদ্রব্য উদ্ধার হয়েছিল যা গত মাস অপেক্ষা চলতি মাসে আনুমানিক ৯৭,৪৩,৫৫৬ টাকার মাদকদ্রব্য বেশি উদ্ধার হয়েছে।
রেঞ্জের পরোয়ানা তামিলের হার পর্যালোচনায় দেখা যায় আগস্ট/১৯ মাসে মোট ১১৭২৯টি পরোয়ানা নিষ্পত্তি হয়েছে এবং গত জুলাই/১৯ মাসে ১০৫০৮টি পরোয়ানা নিষ্পত্তি হয়েছিল যা গত মাস অপেক্ষা চলতি মাসে ১২২১টি বেশি নিষ্পত্তি হয়েছে। পরোয়ানা নিষ্পত্তির হার বৃদ্ধি, মাদকদ্রব্য উদ্ধার বৃদ্ধি এবং সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভাল থাকায় সকল পুলিশ সুপারদের ধন্যবাদ প্রদান করেন।
বাল্য বিবাহ, শিশু নির্যাতন, কিশোর গ্যাংসহ কিশোর অপরাধ দমনে আইনানুগ ব্যবস্থার পাশাপাশি জনসচেতনতামূলক কর্মসূচী গ্রহণের জন্য সকল জেলাকে নির্দেশনা প্রদান করেন। পুলিশ সদস্যদের অপরাধে জড়িত হওয়ার বিষয়ে তিনি কঠোর হুশিয়ারী বার্তা প্রদান করেন।
চলমান জুয়া, ক্যাসিনো, মাদক বিরোধী অভিযান আরও বেগবান করতে হবে এবং জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। গুরুত্বপূর্ণ মামলার রহস্য উদ্ঘাটন ও ওয়ারেন্ট তামিল করণ তথা পুলিশি তৎপরতা আরও বৃদ্ধির জন্য সকল পুলিশ সুপার’গণকে নির্দেশনা প্রদান করেন।
মাসিক অপরাধ সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত ডিআইজি(অ্যাডমিন এন্ড ফিন্যান্স) মোঃ হাবিবুর রহমান, বিপিএম সহ রেঞ্জের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ, রেঞ্জাধীন জেলাসমূহের পুলিশ সুপার’গণ, কমান্ড্যান্ট(এসপি), আরআরএফ, খুলনা, সিআইডি, পিবিআই, এপিবিএন এর পুলিশ কর্মকর্তাবৃন্দ। সবশেষে সভাপতি মহোদয় সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।