পাইকগাছায় লতা ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার : আদালতে জামিন লাভ

0
206

পাইকগাছা প্রতিনিধি:
পাইকগাছায় সরকারী গাছ কাটার অভিযোগে লতা ইউপি চেয়ারম্যান চিত্তরঞ্জন মন্ডলের নামে মামলা হলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেন। বুধবার গভীর রাতে থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ এজাজ শফী সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করেন। এ মামলাটি করেছেন দেলুটি ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা (তহশীলদার) লতিফা আক্তার। মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে গত ১৬ ডিসেম্বর সকালে চেয়ারম্যানের নির্দেশে ধলাই গ্রামের উত্তম রায় নামে এক যুবক লতা ইউনিয়নে নব নির্মিত ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ভিতর থেকে কয়েকটি গেওয়া ও খেঁজুর গাছ কেটে নিয়ে যায়। অফিসের পিয়ন শরিফুলের মাধ্যমে জ্ঞাত হয়ে তহশীলদার লতিফা আক্তার মোবাইলে উত্তম রায় ও পরবর্তীতে চেয়ারম্যান চিত্তরঞ্জন মন্ডলকে গাছ কাটার কারণ সম্বন্ধে জানতে চাইলে তারা উল্টো হুমকি দেন। এক পর্যায়ে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনার পর্যন্ত গড়ালে তারা ইউপি চেয়ারম্যানকে তহশীলদারের সাথে কথা বলে সমাধানের নির্দেশনা দেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত গাছ ফেরৎ না দেওয়ায় ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা লতিফা আক্তার বাদী হয়ে ২৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় চেয়ারম্যান চিত্তরঞ্জন মন্ডল ও উত্তম রায়ের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন। যার নং-১৪। মামলার পর ওসি গভীর রাতে চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করে ও বৃহস্পতিবার সকালে তাকে পাইকগাছা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রেরণ করেন। এদিকে চেয়ারম্যানের পক্ষে আনইজীবীরা আদালতে জামিন আবেদন করলে শুনানীন্তে বিজ্ঞ বিচারক পলাশ কুমার দালাল চেয়ারম্যানের জামিন মঞ্জুর করেন।