পাইকগাছায় চাঁদাবাজী, মারপিট ও লুটপাটের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের

0
276

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি:
পাইকগাছায় চাঁদাবাজী, মারপিট ও লুটপাটের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। ঘটনাটি উপজেলার বারুইডাঙ্গা গ্রামে। মামলাটি করেছেন বিরাশী গ্রামের জ্যোতিন্দ্র নাথ ঘোষের পুত্র ব্যবসায়ী অখিল বন্ধু ঘোষ। থানার মামলা সূত্রে জানা যায়, পাইকগাছা উপজেলার বারুইডাঙ্গা গ্রামে পার্শ্ববর্তী বিরাশী গ্রামের মৃত জ্যোতিন্দ্র নাথ ঘোষের পুত্র অখিল বন্ধু ঘোষ ১৮ বিঘা জমিতে দীর্ঘদিন মৎস্য চাষ করে আসছে। উক্ত মৎস্য লীজ ঘেরকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের আব্দুল মজিদ মোড়লের পুত্র মাহবুবুর রহমান মিঠু ও মাহফুজুর রহমান টিটু ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে আসছিল। চাঁদার টাকা না দিলে মৎস্য লীজ ঘের জবর দখল ও লুটপাটের হুমকি দিয়ে আসছিল। তারই ধারাবাহিকতায় পরপর মৎস্য লীজ ঘেরে দুই দফা হামলা করে। হামলায় মৎস্য লীজ ঘেরের কর্মচারী ও অখিল বন্ধুকে বেদম মারপিট করে নগদ টাকা ও মৎস্য সহ কয়েক লাখ টাকা লুট করে। সর্বশেষ ২ সেপ্টেম্বর রাত ৯টায় মিঠু ও টিটুর নেতৃত্বে একাধিক ব্যক্তি মৎস্য লীজ ঘেরে হামলা পূর্বক তাদেরকে মারপিট ও ভাংচুর, লুটপাট করে লাখ লাখ টাকার ক্ষতি সাধন করে। এ ঘটনায় অখিল বন্ধু ঘোষ বাদী হয়ে বিরাশী গ্রামের মজিদ মোড়লের পুত্র মিঠু, টিটু, মজিদ মোড়ল এবং হাবিবনগর গ্রামের মৃত অবেদ গাজীর পুত্র ইউসুফ গাজীসহ অজ্ঞাতনামা ২০/৩০ জনের নামে পাইকগাছা থানায় এজাহার দায়ের করে। যার জি.আর নং- ৩২৩/১৯। ওসি এমদাদুল হক শেখ জানান, মামলার তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। অখিল বন্ধু ঘোষ সঠিক রয়েছে। কিন্তু মজিদ গংদের কোন অবস্থাতেই বিরত রাখা যাচ্ছে না। এ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।