পাইকগাছায় আসামীর জামিন নামঞ্জুর হওয়ায় বাদীর বাড়িতে হামলা!

0
170

নিজস্ব প্রতিবেদক:
পাইকগাছায় ভাংচুরসহ ক্ষয়-ক্ষতির মামলায় আদালত আসামীর জামিন নামঞ্জুর করায় তার ক্ষুব্ধ স্বজনরা বাদীর বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও ক্ষতিসাধন করেছে বলে অভিযোগ পাওয়াগেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার পূর্ব গজালিয়া এলাকায়।
মামলার বরাদ দিয়ে থানা পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, উপজেলার পুর্ব গজালিয়ার মৃত আবু বক্কর ঢালীর ৭ ছেলের মধ্যে দু’জন লতিফ ঢালী ও দিদারুল ঢালীর মধ্যে বসত-বাড়িসহ কৃষি জমি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছিল। এ ঘটনার জের ধরে দিদার চলতি বছর আরেক ভাই জুয়েলের বসত-বাড়ী সংলগ্ন ছোট মাছের ঘেরটি তাদের এক চাচাতো ভাই মোস্তাফিজকে লিজ দেন। এ ঘটনায় তাদের ভাইদের মধ্যে দ্ব›দ্ব আরো প্রকট আকার ধারণ করে। এক পর্যায়ে দিদার সুযোগ নিয়ে মোস্তাফিজদের সহায়তায় জুয়েলদের দখলে থাকা পুকুর ও ঘেরের বাঁধ কেটে তার ঘেরের সাথে সংযুক্ত করে মটরসহ মাছের ঘেরে লুটপাট চালায়। এ সময় জুয়েলের স্ত্রী তাছলিমা প্রতিবাদসহ তাদেরকে প্রতিহত করতে চেষ্টা করলে রাসেল ক্ষিপ্ত হয়ে কোদাল দিয়ে তাকে বাড়ি দেয়। এতে তাছলিমার বাম হাত ভেঙ্গে যায়। এ ঘটনায় তাছলিমা বাদী হয়ে গত ২২ ফেব্রæয়ারি পাইকগাছা থানায় একটি মামলা করেন। যার নং-২১। মামলায় প্রধান আসামী রাসেল বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) পাইকগাছা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিন আবেদন করলে বিজ্ঞ বিচারক তার জামিন নামঞ্জুর করেন। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে ঐদিন সন্ধ্যার আগে দিদারুল, মোস্তাফিজুর, ছাত্তার ঢালী, রাসেলের স্ত্রী আরিফাসহ বহিরাগতরা জুয়েলের বাড়ীতে হামলা চালিয়ে তার বসত-বাড়িতে ভাংচুর, লুটপাটসহ ক্ষতিসাধন করে। জুয়েলের অভিযোগ, দিদার গংরা চাইনিজ কুড়ালসহ তার উপর হামলা চালালে তার শিশু ছেলে তাজের চিৎকারে স্থানীয়া এগিয়ে এসে তার পরিবারকে রক্ষা করে। জুয়েল আরো জানান, ঘটনার পুর্বে বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য আক্কাজ ঢালীকে অবগত করেন। খবর পেয়ে রাতেই এসআই সঞ্জিত বিশ্বাস ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ ঘটনায় আঃ লতিফ জুয়েল বাদী হয়ে দিদারুল, মোস্তাফিজুর, রাসেলের স্ত্রী আরিফা বেগমসহ অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে থানায় একটি অভিযোগ করেছেন। এ বিষয়ে ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মোঃ আশরাফুর আলম জানান, অভিযোগের বিষয়ে তদন্তপুর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।