পলাশ সুজনের নেতৃত্বে একযুগ পর নগর যুবলীগের কমিটি গঠন

0
937

নিজস্ব প্রতিবেদক:
দীর্ঘ ১১ বছর ৮ মাস পর নতুন করে গঠন করা হয়েছে খুলনা মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটি। খুলনা মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সফিকুর রহমান পলাশকে আহ্বায়ক ও খুলনা মহানগর ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজনকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিতে আরও ২৩ জনকে সদস্য করা হয়েছে।
মঙ্গলবার রাতে যুবলীগের চেয়ারম্যান ড. ওমর ফারুক চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ এ কমিটির অনুমোদন দেন। নগর যুবলীগের নবনির্বাচিত যুগ্ম আহ্বায়ক শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন রাতে এ প্রতিবেদককে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
আহবায়ক কমিটিতে প্রাধান্য পেয়েছেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতারা। যারা দীর্ঘদিন ছিলেন পদবঞ্চিত। আহ্বায়ক, যুগ্ম আহ্বায়কসহ ২৫ সদস্যের কমিটির অধিকাংশই বিভিন্ন সময়ে ছাত্রলীগের কমিটিতে ছিলেন। সদ্য বিদায়ী কমিটির বেশ কয়েকজনও ঠাঁই পেয়েছেন পলাশ-সুজনের কমিটিতে।
কমিটির সদস্যরা হলেন- এস এম হাফিজুর রহমান, রোজি ইসলাম নদী, কামরুল ইসলাম, আব্দুল কাদের শেখ, এ্যাডভোকেট আল আমিন, মোঃ আবুল হোসেন, কাজী কামাল হোসেন, নজরুল ইসলাম দুলু, শওকত হোসেন, শেখ মোঃ আলী, অভিজিৎ চক্রবর্তী দেবু, কবির পাঠান, তাজুল ইসলাম, মোস্তফা শিকদার, কাজী ইব্রাহিম মার্শাল, জুয়েল হাসান দিপু, সাজ্জাদুর রহমান লিংকন, মহিদুল ইসলাম মিলন, মশিউর রহমান সুমন, মেহেদী মোড়ল, কে এম শাহিন, ইয়াসির আরাফাত, রাশেদুল ইসলাম রাশেদ।
ঘোষিত কমিটির আহ্বায়ক সফিকুর রহমান পলাশ ২০০৩ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত খুলনা মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। এর আগে নগর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নির্বাহী সদস্যের দায়িত্বেও ছিলেন। ছাত্রলীগের নেতৃত্ব ছাড়ার পর যুবলীগের কর্মকান্ডে নিজেকে সক্রিয় রেখেছেন।
নবনির্বাচিত যুগ্ম আহ্বায়ক শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন ২০১০ সালে খুলনা মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০১১ সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের উপ-পাঠাগার সম্পাদক, ২০১৫ সালে মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি এবং পরবর্তীতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন। শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজনের পিতা বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ শহিদুল হক ষাটের দশকে তুখোড় ছাত্রনেতা হিসেবে পরিচিত। যিনি খুলনা মহানগর শ্রমিক লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। ’৭৫ পরবর্তী সময়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার আস্থাভাজন হিসেবে তিনি দক্ষিণাঞ্চলের আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করতে আমৃত্যু কাজ করে গেছেন।
সূত্র জানায়, প্রায় এক যুগ আগে ২০০৮ সালের ৬ জানুয়ারী মহানগর যুবলীগের সর্বশেষ আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। ৫১ সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটির আহবায়ক মনোনীত হন এ্যাড. আনিসুর রহমান পপলু ও যুগ্ম-আহবায়ক মনোনীত হন এস এম মনিরুজ্জামান সাগর ও হাফেজ মোঃ শামীম। ওই কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক হাফেজ মো: শামিম নগর আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক পদে অধিষ্ঠ হয়েছেন। সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলী আকবর টিপু হয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক।
আর বাকি সদস্যদের নিষ্ক্রিয়তায় এক প্রকার ভেঙ্গে পড়ে সংগঠনটির কাঠামো। ফলে দীর্ঘদিন ধরেই সাবেক ছাত্রলীগ নেতাদের নিয়ে কমিটি গঠনের দাবি ওঠে। আর নতুন কমিটি গঠনের গঠনের মাধ্যমে প্রাণ ফিরে পাবে নগর যুবলীগ এমনটাই আশা সকলের।